বাঘ সংরক্ষণে সুন্দরবনে কেল্লা ও মিষ্টি পানির উৎস বাড়ানো হবে


জুন ১১ ২০২৪

মোঃ আলফাত হোসেন---
Spread the love
বাঘ সংরক্ষণে সুন্দরবনে কেল্লা ও মিষ্টি পানির উৎস বাড়ানো হবে বলে জানিয়েছেন খুলনা বিভাগীয় বন কর্মকর্তা ড. আবু নাসের মোহসিন হোসেন।
মঙ্গলবার (১১ জুন) সকাল ১১টায় সাতক্ষীরার শ‍্যামনগর উপজেলা পরিষদ হল রুমে বাঘ সংরক্ষণে গণসচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে সুন্দরবন পশ্চিম বনবিভাগ সাতক্ষীরা রেঞ্জ আয়োজিত সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা জানান।
তিনি আরো বলেন, বনের ভিতরে পশুপাখিদের আশ্রয়ের জন্য বাঘ সংরক্ষণ প্রকল্পের আওতায় কেল্লার সংখ্যা বাড়ানো হবে। মিষ্টি পানির উৎসের সংখ্যা বাড়ানো হবে। চোরা শিকারিদের নির্মূল করতে সকল ধরণের পদক্ষপ গ্রহণ করা হবে।
‌‌সুন্দরবন বাঘ সংরক্ষণ প্রকল্পের আওকায় ‘বাঘ আমাদের অহংকার, রক্ষার দায়িত্ব সবার’ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে অনুষ্ঠিত সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন সুন্দরবন সাতক্ষীরা রেঞ্জের সহকারী বন সংরক্ষক এম কে এম ইকবাল হোছাইন চৌধুরী।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শ‍্যামনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রভাষক সাঈদ-উজ-জামান সাঈদ, শ্যামনগর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান খালেদা আয়ুব ডলি, মুন্সীগঞ্জ ইউপি চেয়ারম্যান অসীম মৃধা, রমজানগর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আল মামুন, কৈখালি ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান শাহিনুর রহমান, বুড়িগোয়ালীনি প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুর রউফ, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা নাজমুল হুদা, নীলডুমুর বিজিবির সুবেদার সুবেদার আরজুল, কোস্টগার্ডের পেটি অফিসার রফিক উদ্দিন, বনবিভাগের বুড়িগোয়ালিনী স্টেশন কর্মকর্তা এবিএম হাবিবুল ইসলাম, কদমতলা স্টেশন কর্মকর্তা আসাদুসজ্জামান, সুন্দরবন সহ-ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি মাহমুদা বেগম প্রমুখ।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন