Site icon Daily Dakshinermashal

চোটের ভয়ে গা বাঁচিয়ে খেলতে চান না তাসকিন

Spread the love

চোটের ভয়ে গা বাঁচিয়ে খেলতে চান না তাসকিন


ক্রীড়া প্রতিবেদক : বিশ্বকাপে তাসকিন আহমেদকে ফিট রাখতে চায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) টিম ম্যানেজমেন্ট। সেজন্য আফগানিস্তান সিরিজ থেকে এশিয়া কাপ পর্যন্ত তাকে বিশ্রাম দিয়ে খেলানো হতে পারে। ২০১৯ বিশ্বকাপে চোটের কারণে খেলতে পারেননি ডানহাতি এই দীর্ঘদেহি পেসার। এবার ওমন কোন পরিস্থিতি চান না নির্বাচক-কোচরা।
চোট থেকে সেরে ওঠার প্রক্রিয়ায় থাকা পেসার তাসকিন জানিয়েছেন, ইনজুরিতে দলের বাইরে থাকা আনন্দদায়ক নয়। চোটের ভয়ে একজন পেসারের পক্ষে গা বাঁচিয়ে খেলা সম্ভব নয়। মাঠে নামলে সামনের বড় ইভেন্টের কথাও মনে থাকে না।
মঙ্গলবার মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামে বোলিং অনুশীলনে এসে তাসকিন সংবাদ মাধ্যমকে বলেন, ‘ইনজুরিতে দলের বাইরে থাকার স্বাদটা আনন্দদায়ক নয়। ২০১৯ বিশ্বকাপে বাদ পড়ার মুহুর্ত দুঃখজনক ছিল। এরপর নিজের ওয়ার্ক এথিকস, প্রসেস চেঞ্জ হয়েছে

তাসকিন

যা আমার জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। এখন ভালো প্রসেসে আছি। আমি প্রসেসের ক্ষেত্রে শতভাগ দিচ্ছি।
বিশ্বকাপের আগে ইনজুরি মুক্ত থাকার পরিকল্পনা বিষয়ে তিনি বলেন, ‘আরেকটা জিনিস, গা বাঁচিয়ে খেলা আমার পক্ষে সম্ভব নয়। বল হাতে নিয়ে সেইফলি খেলার কথা মাথায়ই থাকে না। খেলতে নামলে সামনে বড় ইভেন্ট আছে এটা মনেও থাকে না।’
ভারতে অনুষ্ঠিত বিশ্বকাপে বাংলাদেশের লক্ষ্য ফাইনাল খেলা। ওই আশার পালে হাওয়া দিচ্ছে পেস বোলিং আক্রমণ। তাসকিন জানালেন, পেস বোলিং নিয়ে তারা খুশি। তবে ভালো করার শেষ নেই, ‘প্রত্যেক ডিপার্টমেন্টে সবাই মেহনত করছেন। পেস বোলিং ইউনিট আগের চেয়ে ভালো হয়েছে। আমাদের উন্নতিরও জায়গা আছে। সেটা নিয়ে আমরা কাজ করছি। আমাদের ইচ্ছা, এই পেস ইউনিটটা বিশ্বের সেরা হবে।’
এশিয়ার কন্ডিশনে পেসারদের জন্য সুবিধা কম থাকে। ভারতের উইকেট আবার রানের জোয়ার ওঠে। বিশ্বকাপে ভালো করা সহজ হবে না বলেও মন্তব্য করেছেন তাসকিন, ‘খারাপ করলেই আলোচনা শুরু হবে। এই আলোচনা যাতে না হয় সেটাই চাই। সামনে চ্যালেঞ্জিং খেলা আসছে। কন্ডিশন এতো সহজ হবে না। ব্যাটিং সহায়ক বা স্পোর্টিং উইকেটে খেলা হবে। ফাস্ট বোলার, স্পিনার সবারই চ্যালেঞ্জ থাকবে। ওটার জন্যই নিজেদের প্রস্তুত হতে হবে।’

Exit mobile version