জলবায়ু অধিপরামর্শ ফোরামের ত্রৈমাসিক
সমন্বয় সভায় অনুষ্ঠিত


মার্চ ১৫ ২০২২

১৫ মার্চ (মঙ্গলবার) সকাল সাড়ে ১০টায় সাতক্ষীর জেলা জলবায়ু অধিপরামর্শ ফোরামের আয়োজনে উন্নয়ন সংস্থা লিডার্সের সহযোগিতায় শহরের কাটিয়া আমতলা মোড়স্থ স্বদেশ-সাতক্ষীরার প্রধান কার্যালয়ে ত্রৈমাসিক সমন্বয় সভায় অভিনব পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে।

ফোরামের সদস্য ও সাতক্ষীরা নাগরিক কমিটির আহবায়ক আনিসুর রহিমের সভাপতিত্বে ত্রৈমাসিক সমন্বয় সভায় উপস্থিত ছিলেন ফোরামের সদস্য সচিব ও স্বদেশের নির্বাহী পরিচালক মানবাধিকারকর্মী মাধব চন্দ্র দত্ত, সদস্য ও জেলা নাগরিক কমিটির সদস্য সচিব আবুল কালাম আজাদ, সদস্য ফরিদা আক্তার বিউটিসহ ফোরামের সদস্যবৃন্দ এবং লিডার্সে প্রোগ্রাম সমন্বয়কারী এস এম রাজু জবেদ প্রমূখ।

অধিপরামর্শ সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূলীয় এলাকা জলবায়ু পরিবর্তনের কারনে অত্যন্ত ঝূঁকিপূর্ণ। এই এলাকায় ক্রমবর্ধমান হারে প্রকৃতিক দুর্যোগ বাড়ছে। সাইক্লোন, জলোচ্ছ্বাস, বেড়িবাঁধভাঙন, অধিক বৃষ্টিপাত, অনিয়মিত বৃষ্টিপাত, খরা ও লবণাক্ততা বৃদ্ধি ইত্যাদি নিত্যদিনের সঙ্গী। দক্ষিণ-পশ্চিম উপকূল অঞ্চলের সংকটকে জাতীয় পর্যায়ে তুলে ধরা এবং উপকূলের মানুষের অধিকার আদায়ের লক্ষ্যে সাতক্ষীরা জেলা জলবায়ু অধিপরামর্শ ফোরাম কাজ করে যাচ্ছে।

সভায় জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাবে উপকূলের সংকটে করণীয় বিষয়ক আলোচনা হয়। আগামী তিন মাসে ফোরামের একটি অভিনব পরিকল্পনা তুলে ধরা হয়। পরিকল্পনায় উপকূলীয় এলাকাকে দূর্যোগ ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা ঘোষণা, জলবায়ু পরিবর্তন ও দূর্যোগ মোকাবেলায় স্থায়ী এবং মজবুত ও বেড়িবাঁধ নির্মাণ, সুপেয় পানির টেকসই ও স্থায়ী সমাধান এবং আগামী অর্থবছরে উপকূলীয় এলাকার জন্য পর্যাপ্ত বাজেট বরাদ্দের দাবির প্রেক্ষিতে আলোচনা করা হয়।

সভায় সভাপতি তার বক্তব্যে বলেন, ‘উপকূলীয় এলাকা পরিদর্শন করে যথেষ্ট তথ্য সংগ্রহ করে সরকারের নীতি নির্ধারক মহলে তুলে ধরা দরকার। এসব চিত্র দেখে নীতিনির্ধারক মহল বাজেটে ভূমিকা নিতে পারে। এসব কাজে সকলকে সমন্বয়ের মাধ্যমে এগিয়ে যেতে হবে।”

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন