কেশবপুরে কুড়িয়ে পাওয়া ককটেলে প্রাণ গেল ১শিশুর


এপ্রিল ১৭ ২০২১


শার্শা (যশোর) প্রতিনিধি:
যশোরের কেশবপুর উপজেলার বিদ্যানন্দকাটি ইউনিয়নের বাউশলা গ্রামে বৃহস্পতিবার দুপুরে কুড়িয়ে পাওয়া ককটেল বিস্ফোরণে আব্দুর রহমান (৮) নামে এক শিশু নিহত হয়েছে। এ সময় তার মা নিলুফা বেগম (৩০) ও ছোট বোন মারুফা খাতুন (৪) গুরুতর আহত হয়। আহতদের উদ্ধার করে কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আনার পর তাদের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন ও নিহত শিশুর মরদেহ উদ্ধার করেছে।
এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার বিদ্যানন্দকাটি ইউনিয়নের বাউশলা গ্রামের ভ্যান চালক মিজানুর রহমানের ছেলে আব্দুর রহমান তার ছোট বোন মারুফা খাতুনকে সঙ্গে নিয়ে বাড়ির পাশের বিলে খেলা করতে যায়।
এ সময় বিলের মধ্যে থাকা পরিত্যক্ত টোং ঘরের ভেতর পলিথিনে মোড়ানো একটা কৌটা পেয়ে তারা হাতে করে নিয়ে আসে। বাড়ি ফেরার সময় পথিমধ্যে মসজিদের পাশে মা নিলুফা বেগমকে ওই কৌটা দেখানোর সময় বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণে ঘটনাস্থলে আব্দুর রহমান মারা যায়। গুরুত্বর আহত হয় মা নিলুফা বেগম ও ছোট বোন মারুফা খাতুন।
বিস্ফোরণের বিকট শব্দে এলাকাবাসী ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে আহতদের উদ্ধার করে কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। তাদের অবস্থা আশংকাজনক হওয়ায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। নিহত আব্দুর রহমান স্থানীয় একটি বিদ্যালয়ের দ্বিতীয় শ্রেণীর শিক্ষার্থী। পুলিশ জানায়, কুড়িয়ে পাওয়া কৌটাটি ছিল ককটেল।

খবর পেয়ে য পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে নিহত শিশু আব্দুর রহমানের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশ বোমার ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে ফারুক হোসেন নামে এক যুবলীগ নেতাকে আটক করেছে।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন