মশ্বিমনগর দাখিল মাদ্রাসায়নাশকতা মামলার আসামীকে নিয়োগ প্রদানের চেষ্টা


ডিসেম্বর ৭ ২০২০


সুপার ও সভাপতির অনিয়ম এবং দূর্নীতির প্রতিবাদে মানবন্ধন

  • মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি:


মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে যশোরের মণিরামপুরের মশ্বিমনগর দাখিল মাদ্রাসায় চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী পদে হান্নান নামের এক শিবির নেতাকে নিয়োগ দেওয়ার প্রক্রিয়ার প্রতিবাদে রোববার মানববন্ধন করেছে মশ্বিমনগর ইউনিয়নের জনসাধারণ। দাবী করা হয়েছে নোয়ালী গ্রামের ওয়াজেদ ক্বারীর ছেলে শিবির নেতা একাধিক মামলার আসামী হান্নানকে নিয়োগ করা হলে ইউনিয়নবাসী কোন অবস্থাতেই মেনে নেবে না। লিখিতভাবে জানানো হয়, মাদ্রাসার জমি দাতা মৃত বাসতুল্লাহ সরদারের ছেলে এস এম রবিউল ইসলাম চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী পদে পরীক্ষায় অংশ নিয়ে প্রথম স্থান অধিকারী করে। অভিযোগ রয়েছে, তার কাছ থেকে মোটা অংকের টাকার দাবী করে প্রতিষ্ঠান প্রধান, সুপার মাওলানা নজরুল ইসলাম এবং পরিচালনা পরিষদের সভাপতি শাহরিয়ার খান কাবিল। টাকা দিতে ব্যর্থ হওয়ায় শিবির নেতা হান্নানকে টাকার বিনিময়ে নিয়োগ দিতে চলেছে। এহেন ঘটনার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। এছাড়াও মানববন্ধনে অংশ নেন উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদের সভাপতি খলিলুর রহমান খাঁন, মশ্বিমনগর ইউনিয়ন কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা, মশ্বিমনগর ইউনিয়ন ২নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আকবার আলী সরদার, কৃষকলীগের সহ-সভাপতি মহাসিন খান, কুটির বিষয়ক সম্পাদক রেশমা বেগম, স্থানীয় আওয়ামলীগ নেতা গোলাম মোস্তফা, স্থানীয় বাসিন্দা ইব্রাহিম হোসেন, অশোক, সেলিম রেজা, সীতা রানী, অলোক বিশ্বাস, আব্দুল জব্বার, হাসিনা বেগম, সাদিয়া বেগম, কুদ্দুস সরদার, মর্জিনা বিশ্বাস, আনার হোসেনসহ বিভিন্ন পেশার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।
ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও উপজেলা আওয়ামীলীগ এর কার্যালয়ে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মুঠোফোনে সুপার নজরুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এ ব্যাপারে কিছু বলার নেই আমার। নিয়োগের বিষয়ে যারা কর্মকর্তা রয়েছেন উনারাই ভালো বলতে পারবেন।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন