সাতক্ষীরার দেবহাটায় চাঞ্চল্যকর ইজিবাইক চালক মনিরুল হত্যার ঘটনায় আরো এক আসামী গ্র্রেফতার, ইজিবাইক উদ্ধার


জুলাই ১১ ২০২০

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি: সাতক্ষীরার দেবহাটায় চাঞ্চল্যকর ইজিবাইক চালক মনিরুল হত্যা মামলায় তার খোয়া যাওয়া ইজিবাইকসহ আরো এক আসামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শুক্রবার সকালে উপজেলার গাজীরহাট এলাকা থেকে দেবহাটা থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে।
গ্রেফতারকৃত আসামীর নাম রমজান আলী (৪০)। তিনি কালিড়ঞ্জ উপজেলার সোনাটিকারী গ্রামের মৃত শহর আলী সরদারের ছেলে।
গ্রেফতারকৃত রমজান আলীর দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে উপজেলার কামটা গ্রামের কৌশিক সেন গুপ্তের পুকুর থেকে ও হাঁসড়াতলা সমাধিস্থলের পাশের একটি বাগান থেকে পাট পাট ছাড়ানো অবস্থায় নিহত মনিরুলের ব্যবহৃত ইজিবাইকটি উদ্ধার করা হয়।
এর আগে গত ২ জুলাই ২০২০ ইং তারিখ বৃহষ্পতিবার সাতক্ষীরার বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট বিলাস মন্ডলের আদালতে নিহত ইজিবাইক চালক মনিরুলের স্ত্রী গ্রেফতারকৃত আসামী রাবেয়া খাতুন ও তার প্রেমিক উপজেলার কামটা গ্রামের ওহাব সরদারের ছেলে সাইদুর রহমান রাজু পৃথক পৃথকভাবে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী প্রদান করেন। জবানবন্দীতে কেন, কি কারনে, কোথায় ও কিভাবে মনিরুলকে ঠান্ডা মাথায় পরিকল্পনা করে খুন করা হয়েছে তার বর্ননা দেন। মনিরুলের স্ত্রী রাবেয়ার সাথে রাজুর অবৈধ সম্পর্কের জেরে তারা উভয়ে পরিকল্পনা করে তাকে হত্যা করেছে বলে আদালতে তারা জানান। উল্লেখ্য, গত ২৫ জুন ২০২০ ইং তারিখে সাংসারিক বিরোধে মনিরুল তার স্ত্রী রাবেয়াকে মারপিট করলে ওই দিন রাতে রাবেয়া ও তার প্রেমিক সাইদুর রহমান রাজু এবং রমজান নামের একজনসহ তিন জনে মিলে পরিকল্পিতভাবে মনিরুলকে হত্যা করে বলে রাবেয়া ও রাজু গত ২ জুলাই আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবান বন্দী প্রদান করেন। এরপর শুক্রবার সকালে এ মামলার অপর আসামী রমজানকে নিহত মনিরুলের ব্যবহৃত ইজিবাইকসহ গ্রেফতার করে পুলিশ।
এ মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দেবহাটা থানার পুলিশ পরিদর্শক উজ্জ্বল কুমার মৈত্র জানান, মনিরুল হত্যায় জড়িত কাউকে ছাড় দেওয়া হবে না। ইতিমধ্যে মনিরুলের ব্যবহৃত ইজিবাইকসহ রমজানকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন