পৃথিবী ঘেঁষে বেরবে বিশালাকার গ্রহাণু, গতি ঘন্টায় ৪৮ হাজার কি.মি!


জুলাই ২৪ ২০২০

পৃথিবীর দিকে ধেয়ে আসছে এক বিশালাকার গ্রহাণু। সম্প্রতি নাসা একটি সতর্কতা জারি করে বলেছে, শুক্রবার পৃথিবীর গা ঘেঁষে বেরিয়ে যাবে ১৭০ মিটার বিশালাকার একটি গ্রহাণু। গ্রহাণুর নাম ২০২০এনডি। ২৪ জুলাই পৃথিবীর সবথেকে কাছে থাকবে এই গ্রহাণু।

পৃথিবীর ০৩৪ অ্যাস্ট্রোনোমিকাল ইউনিট মানে ৫০ লক্ষ ৮৬ হাজার ৩২৮ কিলোমিটার দূর থেকে পেরোবে গ্রহাণুটি। পৃথিবীর এতো কাছ থেকে যাও এই গ্রহাণুকে নাসা সম্ভাবিত বিপদ শ্রেণীতে রেখেছে। প্রতি ঘণ্টায় ৪৮,০০০ কিলোমিটার বেগে ছুটে আসছে গ্রহাণুটি।

এর আগে ৫ জুন একটি অ্যাস্ট্রয়েড পৃথিবী থেকে ১ লক্ষ ৯০ মাইল দূর দিয়ে পেরিয়ে গিয়েছিল। অ্যাস্ট্রয়েড ২০২০ এলডি পৃথিবী আর চাঁদের মধ্যখান দিয়ে পার করে যায়। ওই গ্রহাণুর আয়তন ৪০০ ফুট ছিল।

৭ জুন পর্যন্ত গবেষকদের কাছে এই গ্রহাণুর বিষয়ে নিয়ে কোন তথ্য ছিল না। যদিও বৈজ্ঞানিকরা জানিয়েছিলেন যে ওই গ্রহাণু বেশি বড় ছিল না। কিন্তু সেই গ্রহাণু ২০১৩ সালে সাইবেরিয়ায় ধ্বংসলীলা চালানো চেলিবিনস্ক স্যাটেলাইটের থেকে বড় ছিল।

নাসা জানিয়েছে, যে ০.০৫ অ্যাস্ট্রোনোমিকাল ইউনিট বা তার থেকে কম দূরত্ব দিয়ে যাওয়া গ্রহাণুর পৃথিবীর কাছে আসার বিপদ থাকে। কিন্তু তাই বলে এটা নয় যে তার প্রভাব পৃথিবীর উপর পড়বে।

দ্য প্ল্যানেটরি সোসাইটির কথা অনুযায়ী, ৩ ফুটের প্রায় ১ বিলিয়ন গ্রহাণু আছে, কিন্তু এগুলি পৃথিবীর জন্য কোনও বিপদ নয়। ৯০ ফুটের থেকে বড় গ্রহাণু থেকে পৃথিবীর বড়সড় ক্ষতি হতে পারে। প্রতি বছর প্রায় ৩০টি ছোট গ্রহাণু পৃথিবীতে এসে পড়ে, কিন্তু তাতে পৃথিবীর খুব একটা বেশি ক্ষতি হয় না।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন