ফিংড়ীতে ইজারাকৃত মৎস্য ঘের থেকে দুই লক্ষাধিক টাকার মাল লুটের অভিযোগ


এপ্রিল ৭ ২০২০

Spread the love
to me


আশাশুনি প্রতিনিধি: মহামারী করোনাভাইরাস কে উপেক্ষা করে সদর উপজেলার ফিংড়ি ইউনিয়নের হাবাসপুর গ্রামে ইজারাকৃত মৎস্য ঘের থেকে দিনে দুপুরে দুই লাখ টাকার বিভিন্ন প্রজাতির সাদা মাছ করার অভিযোগ পাওয়া গেছে এ ব্যাপারে মঙ্গলবার সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। লিখিত অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, হাবাসপুর গ্রামের আসমাতুল্লাহ সরদারের ছেলে জিয়ারুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে হাবাসপুর গ্রামের পশ্চিম বিলে ১৪বিঘার একটি জমিতে মৎস্য ঘের পরিচালনা করে আসছেন। তার মৎস্য ঘের থেকে হাবাসপুর গ্রামের সাজ্জাদ সরদারের ছেলে হুমায়ুন কবির ও মিলন হোসেন, সিজ্জাত সরদারের ছেলে সাইদুল ইসলাম, আলিজানের ছেলে আব্দুল মমিন সহ ১০/১২ জন ব্যক্তি মৎস্য ঘের থেকে পাঁচ এপ্রিল প্রথম দফায় একলাখ টাকার ও ছয় এপ্রিল দ্বিতীয় দফায় আবারো লক্ষাধিক টাকার মাছ লুট করে তারা। ঘটনায় মাছ লুটকারীদের বাধা দিলে তারা মৎস্য ঘেরের কর্মচারী মুক্তার হোসেনকে মারপিট করে আহত করে। তাকে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে। এমতাবস্থায় ইজারাকৃত মৎস্য ঘের থেকে মাছ লুটকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণে সাতক্ষীরা জেলা পুলিশের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন ভুক্তভোগীরা।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন