পাঁচ লাখ টাকা যৌতুকের দাবীতে গৃহবধুকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারাত্মক জখম করেছে স্বামী ও শশুর বাড়ির লোকজন


এপ্রিল ২০ ২০২০

Spread the love


সাতক্ষীরায় পাঁচ লাখ টাকা যৌতুকের দাবীতে এক সন্তানের জননী জান্নাতুল নাঈম রিতু (২৭) নামে এক গৃহবধুকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে মারত্মক জখম করেছে স্বামী দেবর ও শাশুড়ি। সোমবার সকালে সুলতান শেখপাড়ায় এ ঘটনাটি ঘটে। বর্তমানে ওই গৃহবধু সাতক্ষীরা সদর হাসপাতলে চিকিসাধীন আছেন।
আহত গৃহবধুর দাখিলকৃত সাতক্ষীরা সদর থানায় এজাহার সুত্রে জানা যায়, প্রায় চার বছর পূর্বে শ্যামনগর উপজেলার নকিপুর ইউনিয়নের পশ্চিম মাহমুদপুর গ্রামের ঈমান আলী গাজীর ছেলে আবু বকর সিদ্দিকের সাথে বাগেরহাট জেলার ফকিরহাট থানার আট্রক ইউনিয়নের ছোটবাহিরদিয়া গ্রামের মৃত মিজানুর রহমানের কন্যা জান্নতুল নাঈমের বিবাহ হয়। বিবাহের পর তাদের ঘরে দুই বছরের একটি কন্যা সন্তান আছে। বিবাহের পর আমার স্বামী বিভিন্ন অজুহাত দিয়ে আমার পিতার কাছ থেকে যৌতুক হিসেবে প্রায় ১২ লাখ টাকা আদায় করে। সম্প্রতি সে আরো ৫ লাখ টাকা দাবি করে। আমারা দিতে অস্বীকার করায় ঘটনার দিন আমার স্বামী আবু বকর সিদ্দিক দেবর রুহুল কুদ্দুস ও শ্বাশুড়ি আছিয়া খাতুন মিলে আমাকে বেধম মারপিট করে আহত করে। এবং আমার স্বামী ধারালো ছুরি দিয়ে আমাকে জবাই করতে আসে। আমি প্রাণ ভিক্ষার জন্য ধস্তাধস্তির এক পর্যায়ে সে আমকে বাম হাতে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। এ সময় দেবর ও শ্বাশুড়ি আমাকে লোহার রড দিয়ে শরিরের বিভিন্নস্থানে পিটিয়ে মারাত্মক জখম করে। আমার বাম হাতে ১৫ টা সেলাই দিতে হয়েছে। আমি অজ্ঞান হয়ে গেলে পার্শ¦বর্তী প্রতিবেশিরা আমাকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।
সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো: আসাদুজ্জামান জানান, আহত গৃহবধু থানায় স্বামী দেবর ও শাশুড়ির বিরুদ্ধে এজাহার দাখিল করেছেন। আসামীদের ধরতে পুলিশ অভিযানে নেমেছে বলে তিনি জানান।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন