সাতক্ষীরায় ভ্রাম্যমাণ আদালতে ২২ জুয়াড়ির ১ মাসের সাজা


জুলাই ১ ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক ঃ দিন দুপুরে জুয়া খেলতে গিয়ে হাতে নাতে ধরা খেলো সাতক্ষীরার ২২ জুয়াড়ি। তাদের প্রত্যেককে এক মাস করে কারাদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত।
সোমবার বিকালে সাতক্ষীরার নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সজল মোল্লার নেতৃত্বে র‌্যাবের একটি দল শহরের ব্যস্ততম লাবনী মোড় এলাকার ফ্রেন্ডস ড্রামাটিক ক্লাব থেকে তাদের আটক করে। অভিযান চলাকালে তাদের কাছ থেকে ১ লাখ ১০ হাজার টাকা, বিপুল পরিমান তাস এবং কয়েকটি মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে ।
ভ্রাম্যমান আদালতে সাজাপ্রাপ্তরা হলেন, ঠিকাদার আবদুস সেলিম, আলিয়ার রহমান, ইয়ারুল খাঁ, সিরাজুল ইসলাম, রিয়াজুল ইসলাম, মো. দেলোয়ার সরদার, হান্নান গাজি, মো. মাসুম, কামরুল ইসলাম, ফরহাদ হোসেন, শফিকুল ইসলাম, মো. জালালউদ্দিন, মইনুল ইসলাম, লিয়াকত হোসেন, সালামত আলি, রবিউল ইসলাম, মো. আলি হায়দার, মো. রাশেদুল মোড়ল, আল আমিন, আবদুর রহমানসহ ২২ জন।
তবে এই জুয়ার আসর থেকে কৌশলে পালিয়ে গেছেন শহরের কুখ্যাত জুয়াড়ি জেলা শ্রমিক লীগ সভাপতি সাইফুল করিম সাবু ও তার সহযোগী ভোমরা ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগ নেতা শহিদুল ইসলাম। অভিযানের সময় পালিয়ে গিয়ে তারা একটি কক্ষে বসে সিগারেট ফুঁকছিল বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। এই ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জুয়াড়ি সাইফুল করিম সাবু। তবে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বলেন, তিনি ঘটনাস্থলে অভিযান চালাতে যাবার পর সাইফুল করিম সাবুকে আসতে দেখেছেন।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সজল মোল্লা আরো জানান, আটকৃতদের প্রত্যেককে এক মাস করে কারাদন্ড দেওয়া হয়েছে। ##

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন