প্রেস বিজ্ঞপ্তি জেএসডি’র মানব বন্ধন অনুষ্ঠিত


জুলাই ৪ ২০১৯

গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি গরীবদের নিঃশেষ করে লুটেরা ও দুর্বৃত্তের মোটা তাজাকরণ প্রকল্প।

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জেএসডি সাধারণ সম্পাদক জনাব আবদুল মালেক রতন বলেছেন, গ্যাসের মূল্য যেখানে কমানো যায় সেখানে উল্টো বৃদ্ধি করার কোন যুক্তি নেই। এ মূল্যবৃদ্ধি লুটেরা, দু:র্বৃত্ত ও দুর্নীতিবাজ কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের মোটা তাজাকরণ প্রকল্প ছাড়া কিছুই নয়। উপরোক্ত শ্রেনীর লোকেরা অগনিত অবৈধ সংযোগ দিয়ে হাজার হাজার লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নেয়। আর এ বিল যেয়ে যুক্ত হয় যারা প্রকৃত সংযোগ গ্রহনকারী তাদের উপর।

গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির ফলে মিল-কল-কারখানার উৎপাদন, পরিবহন ব্যয়, যাত্রী ভাড়া, গৃহস্থালী কাজে গ্যাসের খরচ বৃদ্ধি পাবে। এতে গরীব, নি¤œ মধ্যবিত্ত মানুষের জীবনের দুর্ভোগ আরো বৃদ্ধি পাবে। বাজেটে সরকার ধনীদের কালো টাকা সাদা করা থেকে শুরু করে অনেক ক্ষেত্রে ট্যাক্স, ভ্যাট কমানোর দাবী মেনে নিয়েছে কিন্তু গরীব মধ্যবিত্তদের কোন দাবী মেনে নেয়নি। সঞ্চয় পত্রের সুদ বৃদ্ধি করে পেনশনভোগীদের অবস্থা দুর্বিসহ করে তুলছে। সারা দেশে ৭-৮ তলা পর্যন্ত ভবনের অনেক মালিকদের যেখানে টিন নাম্বার নেই, থাকলেও ট্যাক্স ফাঁকি দেয় সেখানে ব্যবস্থা না নিয়ে গরীব-দুঃখী যাদের জীর্ণ-শীর্ণ বাসায় বিদ্যুৎ সংযোগ আছে বা থাকবে তাদের টিন খোলা বাধ্যতামূলক করে গরীব মারার ব্যবস্থা করা হয়েছে। এর বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।

জনাব মালেক রতন তার বক্তব্যে বাম গণতান্ত্রিক ফ্রন্ট আহুত ৭ ই জুলাইয়ের হরতালের প্রতি নৈতিক সমর্থন ব্যক্ত করেন। আজ সকাল ১১ টায় গণদুর্ভোগের বাজেট ও গ্যাসের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে জেএসডি আহুত সমাবেশ ও মানব বন্ধনে প্রধান বক্তার বক্তব্যে জনাব মালেক রতন এ সকল কথা বলেন।

সভাপতির বক্তব্যে জেএসডি সহ-সভাপতি, ষ্টিয়ারিং কমিটির সদস্য মিসেস তানিয়া রব ভোট ডাকাতির সরকার বাতিল করে অবিলম্বে অবাধ, সুষ্ঠু নির্বাচন দাবী করেন।
মানব বন্ধনে বক্তব্য রাখেন, এ্যাড. সৈয়দ বেলায়েত হোসেন বেলাল, জনাব মোশারফ হোসেন, আবদুর রজ্জাক রাজা, আবদুল্যাহ আল তারেক, নুরুল আবছার, হাজী আখতার হোসেন ভূইয়া, মোশাররফ হোসেন, আবদুল আউয়াল প্রমুখ।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন