আশাশুনিতে গরু চুরির ঘটনায় ৪জনের মামলা ॥ আটক-১


জুলাই ১৭ ২০১৯

নিজস্ব প্রতিবেদক : আশাশুনিতে গরু চুরির ঘটনার মূল হোতা তোফাকে আটক করেছে আশাশুনি থানা পুলিশ। আটক তোফা গাইন বাইতলা গ্রামের বাবু গাইনের পুত্র।
তোফার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী কাপসন্ডার কুখ্যাত রমজান আলীসহ ৪ জনকে আসামীকে ১৭ জুলাই আশাশুনি থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। যার মামলা নং- ১৭/১৬৪।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে আশাশুনি উপজেলার খাজরা ইউনিয়নসহ বিভিন্ন এলাকায় গরুর চুরির ঘটনা ঘটছে। এঘটনায় এলাকাবাসী আতংকিত হয়ে পড়ে। সম্প্রতি গত ৯ জুলাই সন্ধ্যায় হেতাইলখালী এলাকা থেকে দুটি গরু চুরি হয়। গরু দুটির মালিক তুয়াডাঙ্গা গ্রামের রওশন সরদারের পুত্র নাসিম সরদার। গরু দুটির আনুমানিক মূল্য ৭৫ হাজার টাকা। এঘটনায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ১৬ জুলাই মূল হোতা তোফা কে আটক করে ভয়ভীতি প্রদর্শন করে। সে সময় তোফা গরু চুরির কথা স্বীকার করে তারা সাথে জড়িত আরো ৩জনের নাম উল্লেখ করে স্বীকারোক্তি প্রদান করেন।
বাকী ৩ গরু চোর হলেন, কাপসন্ডা গ্রামের আমীন উদ্দীনের পুত্র খোকা, একই এলাকার সুন্দর আলীর পুত্র কুখ্যাত রমজান আলী ও হেতাইলখালী এলাকার মৃত মাজেদ সরদারের পুত্র মোস্তফা সরদার।
তোফা আরো বলেন, দুটি ৪০ হাজার টাকা বিক্রয় করার পর ৪ জন ১০ হাজার টাকা করে ভাগ করে নেওয়া হয়। আর থানা পুলিশকে ম্যানেজ করার দায়িত্ব রমজান নিয়েছিল।
এঘটনায় আশাশুনি থানা ওসি তদন্ত মোঃ ইমারত হোসেন জানায়, গরু চোরদের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। ১ জনকে আটক করা হয়েছে। বাকীদের আটকে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন