সাতক্ষীরার আশাশুনিতে বেঁড়িবাধ ভেঙ্গে দুই গ্রাম ও শতাধিক মৎস্য ঘের প্লাবিত


নভেম্বর ২৪ ২০১৮

 
আশাশুনি প্রতিনিধি: জেলার আশাশুনি উপজেলার প্রতাপনগেের হাইল চরের বেঁড়িবাধ ভেঙ্গে দুই প্লাবিত ও শতাধিক ছোট বড় মৎস্য ঘের প্লাবিত হয়েছে। শুক্রবার গভীর রাতে প্রতাপনগর ইউনিয়নের চাকলা গ্রামের হাইল চরের ১শত হাত বেড়িঁবাধ ভেঙ্গে এ ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
প্রতাপনগর ইউপি চেয়ারম্যান জাকির হোসেন জানান, চাকলা বেঁড়িবাধটি দীর্ঘদিন জরাজীর্ন অবস্থায় ছিল। পানি উন্নয়ন বোর্ডকে বারবার বলা হলেও তারা কোন ভুরুক্ষেপ করেনি। শুক্রবার গভীর রাতে কপতাক্ষ নদীর প্রবল জোয়ারের চাপে বাঁধটি ভেঙ্গে যায়। নদীর পানি ঢুকে দুই গ্রাম প্লাবিত ও শতাধিক মৎস্য ঘের প্লাবিত হয়েছে।
তিনি আরও জানান, বেঁড়িবাধটি ভেঙ্গে যাওয়ার পর পানি উন্নয়ন বোর্ডকে বলা হলেও তারা এখনও পর্যন্ত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেনি। এলাকবাসিকে সাথে নিয়ে সেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে বেঁড়িবাঁধটি সংস্কারের উদ্দ্যেগ নেওয়া হলেও কোন কপতাক্ষের প্রবল জোয়ারের চাপে সেটি সম্ভব হচ্ছে না। দ্রুত বাঁধটি সংস্কার না হলে আরও নতুন নতুন এলাকা প্লাবিত ও ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হবে বলে তিনি জানান।
সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল বলেন, ঘটনাটি জানার পর আমি আশাশুনি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ব্যাবস্থা গ্রহনের নির্দেশ প্রদান করেছি। একই সাথে পানি উন্নয়ন বোর্ডকে দ্রুত ব্যাবস্থা গ্রহনের জন্য বলা হয়েছে।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন