ডক্টরস ল্যাবের গাফিলাতিতে চলে গেলেন সৃজনশীল রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব মিসেস মমতাজুন নাহার ঝর্ণা


জুন ২৩ ২০১৮

নিজস্ব প্রতিনিধি: সাতক্ষীরার সাংস্কৃতি ও রাজনৈতিক অংগনের পরিচিত মুখ জাতীয় মহিলা সংস্থার জেলা চেয়ারম্যান মিসেস মমতাজুন নাহার ঝর্ণা গতকাল চলে গেলেন না ফেরার দেশে(ইন্নালিল্লাহি —- রাজিউন)। গত শক্রুবার বাসাতে অসুস্থ হয়ে পড়ার পর তাকে দেখতে আসেন ডা. কাজী আরিফ। তিনি রোগিকে ভালো চিকিৎসার জন্য হাসপতালে নেওয়ার পরামর্শ দেন। এসময় অসুস্থ ঝর্ণাকে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভালো ক্যাবিন না পাওয়ায় সকাল ১০ টায় ডক্টরস ল্যাবে ভর্তি করে এসি ক্যাবিন নিয়ে উঠান। কিন্তু ভর্তির পর থেকে রুগিকে প্রয়োজনীয় চিকিৎসা নাদিয়ে চরম গাফিলাতি দেখান। শক্রুবার থাকায় ল্যাবে বাইরের ডাক্তার আসায় রুগির ভীড় হয় এবং কতৃপক্ষ অত্যাধিক বানিজ্যিক ফয়দা নিতে সে সকল ডাক্তার ও রোগির নিয়ে ব্যস্থ হয়ে উঠে। এ অসুস্থ্য ঝর্ণার প্রতি উদাশিনতা দেখান। ফলে বেলা ১ টার দিকে তিনি একপ্রকার চিকিৎসা ছাড়াই মৃত্যু বরণ করেন। এ মৃত্যুতে মরহুমের স্বজন ও রাজনৈতিক কর্মিরা বিক্ষুব্ধ হয়ে উঠে। তারা ডক্টরস ল্যাবের প্রধান ফটকে তালা লাগিয়ে দিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করতে থাকে। পরে অবশ্য নেতৃবৃন্দের হস্তক্ষেপে বিক্ষুব্ধ নেতাকর্মিরা লাশ নিয়ে হাসপাতাল ত্যাগ করেণ।
মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭১ বছর। ব্যক্তিজীবনে তিন কন্যা সন্তানের জননী ছিলেন। বড় মেয়ে ঢাকা কলেজের সহযোগী অধ্যাপক। মেঝ মেয়ে আমেরিকান প্রবাসী ও ছোট মেয়ে লন্ডন প্রবাসী। সাতক্ষীরা শহরের সুলতানপুরের শেখ আব্দুল মোতালেব এর জ্যেষ্ঠ কন্যা ছিলেন এবং একই গ্রামের এড. শেখ শামছুর রহমান সাতক্ষীরা পৌর আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতির স্ত্রী ছিলেন। তার মৃত্যু সংবাদে সারা সাতক্ষীরায় আওয়ামীলীগ পরিবারে শোকের ছায়া নেমে আসে। মরহুমের সুলতানপুরস্থ সদর উপজেলা মোড়ে বাসভবনে নেতাকর্মীরা হাজির হন। পরিবারিক সুত্রে জানায়, শনিবার সকাল ৯টায় সুলতানপুর ক্লাব মাঠে নামাজে জানাযা অনুষ্ঠিত হবে এবং পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করা হবে। মরহুমের মৃত্যুতে গভীর শোক ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাবেক এমপি মুনসুর আহমেদ, সহ-সভাপতি সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডা: আ.ফ.ম রুহুল হক এমপি, মীর মোস্তাক আহমেদ রবি এমপি, সাবেক এমপি একে ফজলুল হক, সাবেক এমপি ডা: মোখলেছুর রহমান, এড. এস এম হায়দার, জেলা সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম, যুগ্ম সম্পাদক অধ্যক্ষ আবু আহমেদ, সৈয়দ ফিরোজ কামাল শুভ্র, শেখ সাহিদ উদ্দিন, আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. ওসমান গণি, কৃষি সম্পাদক সরদার মুজিব, তথ্যগবেষনা সম্পাদক সৈয়দ হায়দার আলী তোতা, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক এড. আজহারুল ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক শেখ হারুন উর রশিদ, প্রচার সম্পাদক শেখ নুরুল হক, বন ও পরিবেশ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক এড. গোলাম মোস্তফা, শিক্ষা সম্পাদক শফিউল আযম লেলিন, যুব ক্রীড়া সম্পাদক শেখ আব্দুল কাদের, শিল্প বাণিজ্য সম্পাদক আলহাজ্ব আব্দুল গণি, সাংগঠনিক সম্পাদক ফিরোজ আহমেদ, আলহাজ্ব আসাদুজ্জামান বাবু, অধ্যক্ষ জাফরুল আলম বাবু, উপ- দপ্তর সম্পাদক জে এম ফাত্তাহ, উপ-প্রচার সম্পাদক অধ্যাপক প্রণব ঘোষ বাবলু, কোষাধ্যক্ষ আসাদুল হক, সাবেক এমপি ইঞ্জিনিয়ার শেখ মুজিবুর রহমান প্রমুখ। অনুরূপ শোক জানিয়েছেন, শ্যামনগর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি স ম জগলুল হায়দার এমপি, সাধারণ সম্পাদক আতাউল হক দোলন, কালিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব শেখ অহেদুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক সাঈদ মেহেদী, আশাশুনি উপজেলার সভাপতি এ বিএম মোস্তাকিম, সাধারণ সম্পাদক এড. শহীদুল ইসলাম পিন্টু, দেবহাটা উপজেলার সভাপতি মুজিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, কলারোয়া উপজেলার সভাপতি ফিরোজ আহমেদ স্বপন, সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলাম লাল্টু, তালা উপজেলার সভাপতি শেখ নূরুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ঘোষ সনৎ কুমার, সাতক্ষীরা সদর উপজেলার সভাপতি এস এম শওকত হোসেন, সাধারণ সম্পাদক শাহাজান আলী, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি আবু সায়ীদ, সাধারণ সম্পাদক শাহাদত হোসেন, সদস্য এড. শাহানাজ পারভীন মিলি, কোহিনুর ইসলাম, মীর মোশাররফ হোসেন মন্টু, ডা.মুনসুর আলী প্রমুখ। অনুরুপ শোক জানিয়েছেন জেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী বেগম রিফাত আমিন এমপি, সাধারণ সম্পাদিকা কাউন্সিলর জ্যোৎন্সা আরা, পৌর মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী বেগম নাদিরা আলী, সাধারণ সম্পাদিকা রেবেকা পারভীন রিক্তা প্রমুখ।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন