গাড়ি চাপায় যুবক হত্যা : ডা. আনিসসহ ২ জনের বিরুদ্ধে মামলা


জুন ২৪ ২০১৮

নিজস্ব প্রতিনিধি: প্রাইভেট কার চাপা দিয়ে যুবক হত্যার ঘটনায় চালক শ্যামনগরের ডা. আনিসসহ দুইজনের বিরুদ্ধে থানায় হত্যা মামলা হয়েছে। নিহত যুবক শাহিন কাদিরের মামা মানবাধিকার কমিশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট এড. ফজলুর রহমান বাদি হয়ে এ মামলা দায়ের করেন।
মামলায় এড. ফজলুর রহমান উল্লেখ করেন যে, গত ৩ জুন সকালে শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডা. আনিসুর রহমান চালক না হয়েও নিজের প্রাইভেট কার (ঢাকা মেট্রো গ ৩৫-১২১১) চালিয়ে শ্যামনগর অভিমুখে যাচ্ছিলেন। খানপুর এলাকার একটি ফিলিং স্টেশনের কাছে তিনি বিপরীত দিক থেকে আসা একটি মোটর সাইকেলে ধাক্কা দিলে আরোহী শাহিন কাদিরসহ দুইজন রাস্তায় পড়ে যান। নিমেষেই তিনি শাহিন কাদিরকে চাপা দিয়ে দ্রুত বেগে পালিয়ে যান। এই ঘটনার পরই শাহিন কাদিরকে শ্যামনগর হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও উক্ত ডা. আনিস তার চিকিৎসার কোনো ব্যবস্থা করতে অস্বীকৃতি জানিয়ে আত্মগোপন করেন। পরে শাহিন কাদিরকে সাতক্ষীরা থেকে খুলনা ও পরে ঢাকায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের আউসিইউতে ভর্তি করা হয়। তাকে লাইফ সাপোর্ট দিয়ে রাখার ১৯ দিন পর ২২ জুন বিকালে মারা যায় শাহিন কাদির। তার চিকিৎসায় এ যাবত ১২ লাখ টাকারও বেশি ব্যয় হয়েছে। মামলায় তিনি আরও বলেন, শাহিন কাদিরের সাথে ডা. আনিসের সম্প্রতি একটি বিষয়ে ঝগড়া হয়। এ সময় তিনি তাকে দেখে নেবেন বলে হুমকি দেন। এর মাত্র কয়েকদিন পর শাহিন কাদিরকে (২২) হত্যার উদ্দেশ্যে ডা. আনিস সম্পূর্ণ সুস্থ মস্তিস্কে গাড়ি চাপা দিয়ে পালিয়ে যান।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন