আলোচিত ছাত্রলীগ নেতা ইমন হত্যা মামলার বাদি গ্রেফতার


জুন ২৬ ২০১৮

নিজস্ব প্রতিনিধি: আলোচিত ছাত্রলীগ নেতা হাসিবুল হাসান ইমন হত্যা মামলায় দীর্ঘ দেড় বছর পর এ মামলার বাদিকে গ্রেফতার করেছে সিআইডি।

মঙ্গলবার সকালে মামলার বাদি নিহতের আপন চাচা আলমগীর হাসান আলমকে শহরের সুলতানপুর গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর দুপুরে ৫ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে আদালতের মাধ্যমে তাকে কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা বাগেরহাট সিআইডি পরিদর্শক সাইফুল ইসলাম জানান, ইমন হত্যার দেড় বছর পর এ মামলার দীর্ঘ তদন্ত শেষে ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্টতার সত্যতা পাওয়ায় মামলার বাদি নিহতের চাচা আলমগীর হাসান আলমকে সকালে গ্রেফতার করা হয়। এরপর দুপুরে তাকে সাতক্ষীরার আমলী আদালত-১ এর বিচারক রাজীব কুমার রায়ের আদালতে পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়।

সিআইডি সাতক্ষীরার সহকারী পুলিশ সুপার আমিনুর রহমান এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, দীর্ঘ তদন্ত শেষে ঘটনার সাথে নিহতের চাচা বাদি আলমগীর হাসান আলম জড়িত থাকার সত্যতা পাওয়ায় তাকে গ্রেফতার করে ৫ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতের মাধ্যমে কোর্ট হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৭ সালের ১৬ জানুয়ারি দিবাগত রাতে ইমনকে তার বাড়ি থেকে মোবাইল ফোনে ডেকে নিয়ে হত্যার পর লাশ সদর উপজেলার ধুলিহর ইউনিয়নের আমতলা গ্রামের ইকবাল বিশ্বাসের মাছের ঘেরে ফেলে রাখা হয়।

পরদিন সকালে পুলিশ ইমনের লাশ উদ্ধার করে। লাশ উদ্ধারের পরপরই ইমনের আপন চাচা আলমগীর হাসান আলমের ইঙ্গিতে পুলিশ আমতলা থেকে স্বাস্থ্যকর্মী ইখতিয়ার হোসেন বিপ্লব, সুলতানপুর থেকে কলেজ ছাত্র মোস্তাফিজুর রহমান মুরাদ ও রেজাউল ইসলাম ওরফে রনি মোল্যাকে গ্রেফতার করে। পরে নিহতের চাচা আলমগীর হোসেন আলম বাদি হয়ে কারো নাম উল্লেখ না করে সাতক্ষীরা সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন