কালিগঞ্জ উপজেলা অখ- রাখার পক্ষে ইসির শুনানীতে মতামত তুলে ধরতে ঢাকা যাচ্ছেন সর্বদলীয় সংগ্রাম কমিটির ৫০সদস্যের প্রতিনিধি দল


এপ্রিল ১৮ ২০১৮

কালিগঞ্জ সংবাদদাতা: নির্বাচনী এলাকা ১০৮, সাতক্ষীরা ৪ সংসদীয় আসনে অখ-িত রাখার বিষয়ে নির্বাচন অফিস ঢাকায় আবেদনের প্রেক্ষিতে আগামী ২৩ এপ্রিল নির্বাচন কমিশন কর্তৃক শুনানির দিন নির্ধারিত হওয়ায় কালিগঞ্জে সর্বদলীয় সংগ্রাম কমিটির এক জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১৮ এপ্রিল সকাল সাড়ে ১০ টায় কালিগঞ্জ মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনে এ সভায় সাতক্ষীরা ৪ নির্বাচনী এলাকার কালিগঞ্জ উপজেলাকে অখ-িত রাখার বিষয়ে কালিগঞ্জ উপজেলার ১২ টি ইউনিয়নের রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ, মুক্তিযোদ্ধা, সাংবাদিক, শিক্ষক, জনপ্রতিনিধি, সুধি ব্যাক্তিরা অংশগ্রহণ করেন। সভায় সভাপতিত্ব করেন কালিগঞ্জ উপজেলা সর্বদলীয় সংগ্রাম কমিটির আহবায়ক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব শেখ ওয়াহেদ্জ্জুামান। সভায় কালিগঞ্জ উপজেলার ১২ টি ইউনিয়নকে সংসদীয় আসনে অখন্ডিত রাখার দাবি জানিয়ে বক্তব্য রাখেন কালিগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ভাড়াশিমলা ইউনিয়ন পরিষদের প্রাক্তন চেয়ারম্যান আলহাজ্ব খান আছাদুর রহমান, কালিগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও ভাড়াশিমলা ইউনিয়নের প্রাক্তন চেয়ারম্যান অধ্যাপক আব্দুল খালেক, কালিগঞ্জ উপজেলা জাতীয়পাটির সভাপতি শেখ মাহবুবুর রহমান, সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের সদস্য নুরুজ্জামান জামু, উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যাসোসিয়শনের সভাপতি ও ধলবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান গাজী শওকাত হোসেন, চাম্পাফুল ইউপি চেয়ারম্যান মোজ্জামেল হক গাইন, মথুরেশপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান গাইন, রতনপুর ইউপি চেয়ারম্যান আশরাফুল হোসেন খোকন, কুশলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়র শেখ মেহেদী হাসান সুমন, কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সুকুমার দাশ বাচ্চু, কালিগঞ্জ সোহরোওয়ার্দী পার্ক কমিটির সদস্য সচিব এ্যাড. জাফরুল্লাহ ইব্রাহীম, কৃষ্ণনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোস্তাফা কবিরুজ্জামান মন্টু, মৌতলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি দুলাল চন্দ্র ঘোষ, কুশলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি কাজী কাউফিল উরা সজল, ধলবাড়িয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি সজল মুখার্জি, বিষ্ণপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক নিরাঞ্জন কুমার পাল বাচ্চু, অন্যান্য মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি কালিগঞ্জ উপজেলা শাখার সভাপতি শেখ আনোয়ার হোসেন, উপজেলা রিপোর্টার্স ক্লাবের সভাপতি নিয়জ কওছার তুহিন, কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের তথ্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক এস এম আহম্মাদ উল্যাহ বাচ্ছু, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভানেত্রী জেবুর নাহার জেবু, দক্ষিন শ্রীপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি গোবিন্দ মন্ডল, উপজেলা যুব মহিলা যুবলীগের সভাপতি ফতেমা ইসলাম রিক্তা, কালিগঞ্জ উপজেলা মেম্বর এ্যাসোশিয়নের সভাপতি ও তারালী ইউনিয়নের ইউপি সদস্য সামসুজ্জামান, মেম্বর আব্দুল জলিল, মুক্তিযোদ্ধা নূর মোহাম্মদ, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাওন আহম্মেদ সোহাগ, সাবেক সভাপতি গৌতম কুমার লস্কর, জাতীয় শ্রমিকলীগ কালিগঞ্জ উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক গাজী আব্দুস সবুর, নলতা ইউনিয়নের সংরক্ষিত মহিলা সদস্য খোদেজা খাতুন, বঙ্গবন্ধু স্মৃতি সংসদের সভাপতি তৈহিদুর রহমান প্রমুখ। সভায় সাতক্ষীরা ৪ সংসদীয় আসনের সীমানা ইসি কর্তৃক পূণঃনির্ধারন করায় ইতোমধ্যে নির্বাচন কমিশনে ইসির সিদ্ধান্তের পক্ষে-বিপক্ষে ১৭ টি আবেদন জমা পড়েছে। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ইসি কতৃক সীমানা পূণঃনির্ধানের বিষয়ে আগামী ২৩ এপ্রিল শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে। ইসির শুনানীতে কালিগঞ্জ থেকে সর্বদলীয় সংগ্রাম কমিটির নেতৃবৃন্দের পক্ষে বক্তব্য উপস্থাপনের জন্য ঢাকার উদ্দেশ্যে ৫০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও সংগ্রাম কমিটির আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব শেখ ওয়াহেদ্জ্জুামানের নেতৃত্বে ঢাকায় যাবেন। নেতৃবৃন্দ নির্বাচন কমিশন কার্যালয়ের শুনানীতে কালিগঞ্জ উপজেলাকে অখ- রেখে সাতক্ষীরা ৪ আসনের ইসির কতৃক পূণঃনির্ধারিত সীমানা বলবৎ রাখার যৌক্তিক কারণগুলো তুলে ধরার জন্য প্রয়োজনীয় আইনজীবী নিয়োগ দেবেন।
সভায় বলা হয়, কালিগঞ্জ উপজেলার ১২ টি ইউনিয়ন ভাগ হয়ে সাতক্ষীর ৪ ও সাতক্ষীরা ৩ আসনে বিভাক্ত করে নির্বাচনী এলাকা বিগত দু’নির্বাচনে ভোটগ্রহণ করা হয়। নির্বাচনোত্তর এলাকার উন্নয়ন ও প্রশাসনিক কার্যক্রম স্বাভাবিক করতে বেশ জটিলতা সৃষ্টি হয়ে থাকে। ফলে প্রশাসনের পক্ষেও স্বাভাভিকভাবে কার্যক্রম করা বেশ দূরহ হয়ে উঠে। এহেন বাস্তবতায় নির্বাচন কমিশন অত্যন্ত বিজ্ঞতার সাথে প্রশাসনিক এলাকা বিভক্ত না রাখার সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে সাতক্ষীরা-৪ আসনের নির্বাচনী এলাকা নির্ধারণ করে গেজেট প্রকাশ করেছেন সেজন্য সভায় প্রধান নির্বাচন কমিশনসহ সকল নির্বাচন কমিশনারকে ধন্যবাদ জানানো হয়।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন