মার্চ ২২ ২০১৮

ডেস্ক রিপোর্ট: স্বল্প উন্নত দেশের তালিকায় যাওয়ায় গতকাল বিভিন্ন স্থানে আনন্দ শোভাযাত্রা ও আনন্দ র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়। জেলার বিভিন্ন স্থানের আনন্দ র‌্যালি এবং শোভাযাত্রা নিয়ে আমাদের এ প্রতিবেদন।
নর্দান ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এন্ড টেকনো

লজি: নর্দান ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এন্ড টেকনোলজি খুলনার উদ্যেগে গত বৃহস্পতিবার সকালে বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণ উপলক্ষে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস থেকে এক বর্ণাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রা শেষে অত্র বিশ্ববিদ্যালয়ের অডিটোডিয়ামে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, জনাব শেখ আশরাফুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক, বৃহত্তর খুলনা উনন্নয় সংগ্রাম সমন্ময় কমিটি। প্রধান অতিথি বক্তৃতায় বলেন, বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশের স্ট্যাটাস হতে উত্তরণের যোগ্যতা অর্জন বাংলাদেশের এক ঐতিহাসিক অর্জন যা স্বাধীনতার ৪৭ বছর পর বাংলাদেশের সবচেয়ে বড় অর্জন।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডীন প্রফেসর মো: ইব্রাহীম। সভাপতি বক্তৃতায় বলেন, বাংলাদেশ যে একটি সম্ভবনাময় দেশ তার বড় প্রমান এই অর্জন।

উক্ত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন এনইউবিটি খুলনার রেজিস্ট্রার (ইনচার্জ) এ.এইচ.এম মুঞ্জুর মোরশেদ, কম্পিউটার সাইন্স এন্ড ইঞ্জিয়ারিং বিভাগের প্রধান মো. রবিউল ইসলাম, সহকারী অধ্যপক জনাব রাজীব হাসনাত শাকিল। শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভায় বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক,কর্মকর্তা,কর্মচারী ও বিপুল সংখ্যাক ছাত্র-ছাত্রী স্বতঃর্স্ফূত অংশ গ্রহণ করেন ।

উল্লেখ, গত ১৭ মার্চ শনিবার জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসি (সিডিপি) এ ¯ী^কৃতি প্রদান করেন।

তালা: স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের অভিযাত্রায় দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলেছে বাংলাদেশ। এলডিসি থেকে বেরিয়ে বাংলাদেশ এখন উন্নত দেশের তালিকায় উঠে এসেছে। এ উপলক্ষে তালা উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবার সকালে আনন্দ শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত হয়। তালা উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে শোভাযাত্রাটি বের হয়ে উপ-শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে উপজেলা পরিষদে যেয়ে শেষ হয়। শোভাযাত্রায় শেষে উপজেলা পরিষদ চত্বরে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ফরিদ হোসেন। জেলা আওয়ামীলীগের উপ-প্রচার সম্পাদক ও তালা প্রেস ক্লাবের সভাপতি প্রভাষক প্রণব ঘোষ বাবলু’র পরিচালনায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ঘোষ সনৎ কুমার।
এসময় আরও বক্তব্য রাখেন তালা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাসান হাফিজুর রহমান,উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জেবুনেচ্ছা খানম,তালা মহিলা ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুর রহমান,শহীদ মুক্তিযোদ্ধা মহাবিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ এনামুল ইসলাম, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সহ-সম্পাদক রফিকুল ইসলাম, উপজেলা প.প কর্মকর্তা কুদরত-ই-খোদা, কৃষি কর্মকর্তা সামছুল আলম, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো. আতিয়ার রহমান,শিক্ষা অফিসার অহিদুল ইসলাম, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মাহফুজুর রহমান, ইউপি চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান,তালা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সরদার মশিয়ার রহমান প্রমুখ । শোভাযাত্রায় উপজেলা প্রশাসনের পাশাপাশি তালা প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান, বিভিন্ন এনজিও, ব্যানার ও ফ্যাস্টুন নিয়ে অংশগ্রহণ করেন।

শ্যামনগর: ‘উন্নয়নের গণতন্ত্র, শেখ হাসিনার মূলমন্ত্র’ এ প্রতিপাদ্যকে সামনে নিয়ে বাংলাদেশ ‘‘নিম্ম আয়ের দেশ থেকে নিম্মমধ্য আয়ের দেশ’’ উত্তরণে জাতি সংঘ কর্তৃক স্বীকৃতির অর্জনকে স্মরনীয় করতে ২০-২৫ মার্চ ২০১৮ প্রচারাভিযান ও সেবা সপ্তাহ উদযাপন উপলক্ষ্যে আলোচনা সভা, সেমিনার ও সংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছে শ্যামনগর উপজেলা প্রশাসন। সপ্তাহ ব্যাপি এ কর্মসূচীর অংশ হিসেবে গতকাল ২২ মার্চ সকাল ১০ টায় উপজেলা নির্বাচন অফিস, কৃষি অধিদপ্তর, সমবায় অধিদপ্তর, জাতীয় মহিলা সংস্থা, শ্যামনগর পৃথক পৃথক ব্যানার সহ উপজেলা সদরের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষক, ছাত্র-ছাত্রী ও সরকারী বেসরকারী কর্মকর্তা কর্মচারীদের অংশগ্রহণে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: কামরুজ্জামানের নেতৃত্বে এক বর্ণাঢ্য আনন্দ শোভাযাত্রা উপজেলা সদরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে উপজেলা চত্বরে আলোচনা সভায় অংশ নেয়। প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য এস,এম, জগলুল হায়দার উপস্থিত না থাকায় আলোচনা সভায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে রাখেন ভারপ্রাপ্ত উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এস,এম, মহাসীন উল মুলুক, উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি সুজন সরকার, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার দেবী রঞ্জন মন্ডল, ডেপুটি কমান্ডার গাজী আবুল হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা মাষ্টার নজরুল ইসলাম, শ্যামনগর সরকারি মহসীন ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ তন্ময় কুমার সাহা, সদর ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাড: জহুরুল হায়দার বাবু। উপস্থিত ছিলেন জাতীয় মহিলা সংস্থা শ্যামনগর চেয়ারম্যান অধ্যাপিকা সাহানা হামিদ, প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মো: আবু বাসার, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আ.কা. রফিকুজ্জামান, উপজেলা প্রকৌশলী চৌধুরী আশিক রেজা, নির্বাচন কর্মকর্তা মো: রবিউল ইসলাম, কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো: আবুল হোসেন মিয়া, মৎস্য কর্মকর্তা মো: ফারুক হোসাইন সাগর, ওসিস কর্মকর্তা প্রনব বিশ্বাস, ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুর রউফ, এ্যাড: শোকর আলী প্রমুখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন জাগো যুব ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক শেখ ফারুক হোসেন।

দেবহাটা: দেবহাটা উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে স্বল্পোন্নত দেশের স্টাটাস থেকে উত্তরনের যোগ্যতা অর্জনের ঐতিহাসিক সাফল্য উপলক্ষ্যে র‌্যালী, সেমিনার, চিত্র প্রদর্শনী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুরুতে উপজেলা পরিষদ থেকে র‌্যালীটি উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে। পরে উপজেলা মুক্ত মঞ্চে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন দেবহাটা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আলহাজ¦ আব্দুল গনি। দেবহাটা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাফিজ-আল আসাদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনায় বিশেষ অতিথি ছিলেন দেবহাটা উপজেলা আঃলীগের সভাপতি নওয়াপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ¦ মুজিবর রহমান, উপজেলা আঃলীগের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, দেবহাটা থানার এসআই ইয়ামিন আলী ও উপজেলা আঃলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সখিপুর ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক হোসেন রতন। উপজেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মিসেস নাজমুন নাহারের সঞ্চালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন দেবহাটা উপজেলা প্রকৌশলী মমিনুল ইসলাম, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ জসিমউদ্দীন, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা মোঃ বদরুজ্জামান, উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা প্রনব কুমার মল্লিক সহ উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন কর্মকর্তা ও সাংবাদিকবৃন্দ। পরে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগীতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরষ্কার বিতরন করা হয়। এছাড়া ঈদগাহ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হারুন-অর রশিদের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন প্রধান শিক্ষক সিরাজুল ইসলাম, শিক্ষক সাইফুল্লাহ আল তারিক, ইউপি সদস্য নির্মল কুমার, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য কে.এম রেজাউল করিম, আব্দুর রব লিটু, আকবর আলী, সখিপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি তৌহিদ হোসেন, শিক্ষক আকতার রেজা বাবুল প্রমুখ।

কুলিয়ার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান: স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে ওঠার যোগ্যতা অর্জনের ঐতিহাসিক সাফল্য উদযাপন উপলক্ষে সারা দেশের ন্যায় কুলিয়া বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আনন্দ র‌্যালি পালিত হয়েছে। জাতিসংঘের কাছ থেকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশের কাতারে ওঠার যোগ্যতা অর্জনের স্বীকৃতিপত্র শুক্রবার (১৬ মার্চ) সন্ধ্যায় নিউ ইয়র্কে বাংলাদেশ মিশনের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেনের হাতে তুলে দেয়া হয়। তারই পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় বহেরা এ.টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলহাজ্ব ইমাদুল ইসলামের সভাপতিত্বে আনন্দ র‌্যালী, আলোচনা অনুষ্ঠান, চিত্র প্রদর্শনী, ছবি আঁকা ও রচনা প্রতিযোগিতা করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক জাহাঙ্গীর কবির, শিক্ষক ইউনুছ আলী, মনিরুল ইসলাম, ক্রিড়া শিক্ষক রফিকুল ইসলাম খান, মুজিব উদ-দৌলা, সেলিমুজ্জামান, রুবেল হাসান , মুশফিকুর রহমান, হাফিজা খাতুন, সাফিয়া খাতুন, জ্যোতি রানী সহ সকল শিক্ষক- শিক্ষাথীবৃন্দ। এছাড়া শোভাযাত্রা পালন করেন সূর্বনাবাদ সেন্টাল হাই-স্কুল, বহেরা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, কুলিয়া স্যার আনছার আলী প্রাথমিক বিদ্যালয়, বহেরা দারুল উলুম দাখিল মাদ্রাসা, কুলিয়া এলাহী বক্স দাখিল মাদ্রাসা, খাসখামার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কুলিয়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ও পুষ্পকাটি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রমুখ।

খানবাহাদুর আহ্ছানউল্লা কলেজ: বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে মাথাপিছু বার্ষিক আয়, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, শিক্ষার হার, খাদ্য ও পুষ্টি, জলবায়ু, উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে কৃষি চাষ, বিদ্যুৎ, বেকারত্ব দূরীকরণ, বৈদেশিক কর্মসংস্থান বৃদ্ধির মাধ্যমে অর্থ উপার্জন সহ প্রায় ক্ষেত্রে সূচক উর্ধ্বগামির মাধ্যমে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ার স্বীকৃতি পাওয়ায় সারা দেশের ন্যায় সাতক্ষীরা জেলার দেবহাটা উপজেলাধীন সখিপুরের ঐতিহ্যবাহী খানবাহাদুর আহ্ছানউল্লা কলেজের আয়োজনে উৎসবমূখর পরিবেশে নানা কর্মসূচী পালিত হয়েছে। সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক ২২ মার্চ বৃহস্পতিবার সকাল ১০টা থেকে অনুষ্ঠিত কর্মসূচীর মধ্যে ছিল- কলেজের আইসিটি হল রুমে রচনা ও কুইজ প্রতিযোগিতা, আলোচনা সভা, বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ, আনন্দ শোভাযাত্রা এবং সবশেষে মিষ্টান্ন বিতরণের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে। আইসিটি হল রুমে প্রথমে রচনা ও কুইজ প্রতিযোগিতা, আলোচনা সভা এবং বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে অত্র কলেজের অধ্যক্ষ মো. রিয়াজুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে এবং ব্যবস্থাপনা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. মনিরুজ্জামান মহসিন’র সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে শিক্ষকদের মধ্য থেকে আলোচনা রাখেন হিসাববিজ্ঞান বিভাগীয় প্রধান মো. আকবর আলী। সদ্য যোগদানকৃত ন্যাশনাল সার্ভিস স্টাফদের মধ্যে বক্তব্য দেন রুকসানা নাহিদ। শিক্ষার্থীদের মধ্য থেকে বক্তব্য রাখে একাদশ বিজ্ঞান শাখার শিক্ষার্থী সালমা খাতুন ও মো. আলমগীর হোসেন। শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন একাদশ শ্রেণির সাফিয়া বিনতে নাহার এবং গীতা পাঠ করে একই বর্ষের শ্যামলী নন্দী। রচনা প্রতিযোগিতায় ১ম, ২য় ও ৩য় যথাক্রমে অপূর্বা মল্লিক, সাগর কুমার দত্ত ও আরজুনা পারভীন। কুইজ প্রতিযোগিতায় ১ম কুলসুম পারভীন, ২য় মাহবুব আলম এবং ৩য় সাগর কুমার দত্ত। অনুষ্ঠানে এবং অনুষ্ঠান শেষে আনন্দ শোভাযাত্রায় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কলেজের উপাধ্যক্ষ আলহাজ্জ মো. আব্দুল মজিদ, সহকারী অধ্যাপক শেখ মিজানুর রহমান, পীযূষ কান্তি মল্লিক, আলহাজ্জ এস এম হারুন অর রশিদ, মোল্লা সাবির হোসেন, মো. কামিদুল হোসেন, মো. আজহারুল ইসলাম, মো. আব্দুল আজিজ, ফেরদৌসী আক্তার পপি, মো. শহিদুল ইসলাম, মো. মইনুদ্দিন খান, মো. আছফারুজ্জামান, মো. আকরাম হোসেন, শাহানুর রহমান, রন্জন কুমার মন্ডল, আলহাজ্জ মাসুদ করিম, নাজমুল হুদা ডালিম, মো. আবু তালেব, দৌলতুন্নেছা পারুল, রিতা রানী, রাবেয়া খাতুন, এস এম ফিরোজ আহম্মেদ, আনোয়ারা খাতুন সহ অন্যান্য শিক্ষক-কর্মচারী ও বিভিন্ন বর্ষের শিক্ষার্থীবৃন্দ। এদিকে ২২ মার্চ বিশ্ব পানি দিবস হওয়ায় একই অনুষ্ঠানে দিবস সম্পর্কেও শিক্ষকমন্ডলী ও শিক্ষার্থীবৃন্দ আলোচনা রাখেন।

কালিগঞ্জ: নিম্ম আয়ের দেশ থেকে নিম্মমধ্য আয়ের দেশে অন্তরভূক্তি হওয়ায় সারা দেশ ব্যাপী প্রচারাভিযান ও সেবা সপ্তাহ উপলক্ষ্যে ২২ মার্চ সকাল ১০ টায় র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে সরকারী কর্মকর্তা-কর্মচারী, বিভিন্ন স্কুল কলেজের ছাত্র-ছাত্রী, শিক্ষক, সাংবাদিক ও এনজিও প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে উপজেলা প্রাঙ্গন থেকে এক বণার্ঢ্য র‌্যালী ব্যান্ড বাদ্য বাজিয়ে উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সম্মেলন কক্ষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা গোলাম মাঈন উদ্দিন হাসানের¡ সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব শেখ ওয়াহেদুজ্জামান। বক্তব্য রাখেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) নূর আহম্মেদ মাছুম, কালিগঞ্জ কলেজের অধ্যক্ষ জিএম রফিকুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডর আব্দুল হাকিম, উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম, প্রানী সম্পাদ কর্মকর্তা ডাঃ মনোজিৎ কুমার মন্ডল, উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা শৈলেন্দ্রনাথ মন্ডল, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা কামরুল ইসলাম, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা শারমিন আক্তার, সমবায় কর্মকর্তা শেখ মুজিবর রহমান প্রমুখ। কালিগঞ্জ প্রশাসনের আয়োজনে প্রচারাভিযান ও সেবা সপ্তাহ উপলক্ষ্যে সকল অফিসের দপ্তরের সেবা সমূহ তুলে ধরে উপজেলা অফিসার্স ক্লাবে সেবাকুঞ্জ প্রদর্শন করা হয়। এছাড়া ২৩ মার্চ উপজেলা পরিষদ মাঠে ফুটবল খেলা, ২৪ মার্চ স্কুলের ছাত্র-ছাত্রীদের চিত্রাংকন ও রচনা প্রতিযোগীতা এবং ২৫ মার্চ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে।

আশাশুনি: বাংলাদেশ নি¤œ আয়ের দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশে উত্তরণে প্রচারাভিযান ও সেবা সপ্তাহ পালন উপলক্ষে আশাশুনিতে বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসন বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় এ কর্মসূচির আয়োজন করে। উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে সকাল সাড়ে ১০ টায় বাদ্য যন্ত্রের মাধ্যমে উন্নয়নের বর্ণনা সহকারে র‌্যালীটি উপজেলার বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে পুনরায় উপজেলা পরিষদ চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। পরে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এবিএম মোস্তাকিম। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাফফারা তাসনীনের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি ছিলেন অধ্যক্ষ মিজানুর রহমান, স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার অরুণ কুমার ব্যানার্জী, সমাজসেবা অফিসার এমদাদুল হক, মৎস্য অফিসার সেলিম সুলতান, কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা রাজিবুল হাসান, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার বাকী বিল্লাহ, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আব্দুল হান্নান, কৃষকলীগ সভাপতি স ম সেলিম রেজা সহ স্থানীয় আ’লীগ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে মাল্টিমিডিয়া প্রজেক্টরের মাধ্যমে বিভিন্ন দপ্তরের উন্নয়নের চিত্র প্রদর্শন করা হয় ।

সাতক্ষীরা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি: বাংলাদেশ নি¤œÑআয়ের দেশ থেকে নি¤œমধ্য আয়ের দেশে উত্তীর্ণ হওয়ায় ২২ সে মার্চ বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টায় সাতক্ষীরা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির বিশেষ সপ্তাহ ১৮ উপলক্ষে র‌্যালী ও আলচনা সভা অনুিষ্ঠত হয়।র‌্যলিতে অংশগ্রহন করেন সমিতির কর্মকর্তা কর্মচারি, সুধি জন, সংবাদিক সহ স্থানীয় বেক্তিবর্গ।বক্তারা বলেন , ১৯৮২-২০১৫ সালে ১ লক্ষ ২৫ হাজার ও ১৫-১৮ সালে ২ লক্ষ ৫ হাজার গ্রাহক সংখ্যা বাড়ে। মোট সংযোগ নির্মান ৬০০০ কিলোমিটার, সিস্টেম লস ১৪-১৫ সালে ১৫.১৩ %,বর্তমান উন্নীত হয়ে ৯.১৩ %আমরা রাত দিন আপনাদের সেবা দিয়ে যাচ্ছি। সাতক্ষীরা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সভাপতি সাইফুল্লাহ আজাদের সভাপতিত্তে বক্তব্য রাখেন ,জি এম নজরুল ইসলাম,শাহ আলম টিটো,আব্দুল গফুর মোড়ল,ডি জি এম জিয়াউর রহমান (ঝাওডাঙ্গা ব্রাঞ্চ),তুষার কান্তি মন্ডল(কালীগঞ্জ),গবিন্দ আগরওয়াল(কারিগরী সদর) ও সাতক্ষীরা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির কর্মকর্তা বৃন্দ, সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জেনারেল ম্যানেজার রবীন্দ্রনাথ দাস।

কুশখালী: শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে মাথাপিছু বার্ষিক আয়, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, শিক্ষার হার, খাদ্য ও পুষ্টি, জলবায়ু, উন্নত প্রযুক্তির মাধ্যমে কৃষি চাষ, বিদ্যুৎ, বেকারত্ব দূরীকরণ, বৈদেশিক কর্মসংস্থান বৃদ্ধির মাধ্যমে অর্থ উপার্জন সহ প্রায় ক্ষেত্রে সূচক উর্ধ্বগামির মাধ্যমে উন্নয়নশীল দেশে উন্নীত হওয়ার স্বীকৃতি পাওয়ায় সাতক্ষীরা সদর উপজেলার কুশখালী ইউনিয়নের বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে উৎসবমূখর পরিবেশে নানা কর্মসূচী পালিত হয়েছে। সরকারি নির্দেশনা মোতাবেক ২২ মার্চ বৃহস্পতিবার সকালে বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়।
সাতানী ভাদড়া স্কুল এন্ড কলেজ: সদরের সাতানী ভাদড়া স্কুল এন্ড কলেজে আনন্দ শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। অধ্যক্ষ সিকদার আবুল কালাম আজাদের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন, সহকারি প্রধান শিক্ষক শেখ শহিদুর রহমান, সহকারি শিক্ষক ও দৈনিক আজকের সাতক্ষীরা’র কুশখালী প্রতিনিধি মো. নাজমুল আরেফিন, শেখ সাব্বির রহমান, সুরাইয়া পারভীন প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সহকারি শিক্ষক মো. আনিসুর রহমান।

কুশখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়: কুশখালী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের আয়োজনে আনন্দ শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুল জব্বার এর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন, সহকারি প্রধান শিক্ষক এ.এস.এম আব্দুল করিম, সহ-শিক্ষক মো. মুজিবর রহমান, মো. মফিজুল ইসলাম, আইনুন নাহার সহ বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ।
অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সহকারি শিক্ষক মোল্যা হায়দার আলী।

বাশদহা বি.কে আদর্শ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়: স্বল্পোন্নত দেশের স্ট্যাটাস হতে বাংলাদেশের উত্তরণের যোগ্যতা অর্জনের ঐতিহাসিক সাফল্য উৎযাপন উপলক্ষ্যে বি.কে আদর্শ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে আনন্দ শোভাযাত্রা, র‌্যালী, আলোচনা সভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের আয়োজনে আনন্দ শোভাযাত্রায় উপস্থিত ছিলেন প্রধান শিক্ষক মো. নাজমুল কবীর, সহকারি প্রধান শিক্ষক মো. আক্তারুল হক, সহ-শিক্ষক মো. মমিনুর রহমান, মো. আছরোফ আলী, আশুতোষ কুমার সাধু, আলতাফ হোসেন, প্রবীর কুমার, আসমাউল হুসনা সহ বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক ও শিক্ষার্থীবৃন্দ। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সহকারি শিক্ষক মো. আব্দুল্লাহ।

গোবরদাড়ী দাখিল মাদ্রাসা: বাংলাদেশের স্বল্পোন্নত দেশের (এলডিসি) স্ট্যাটাস থেকে উত্তরণ উদযাপন উপলক্ষ্যে গোবরদাড়ী দাখিল মাদ্রাসায় র‌্যালি ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত। এ লক্ষ্যে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় উক্ত আলোচনা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অত্র প্রতিষ্ঠানের সুপার মাও: সিদ্দিকুর রহমান। এসময় উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, মাও. আব্দুর রহমান, আবুল হোসেন মাস্টার, শিক্ষক শিরিনা, তানজিলা, আদিত্য, মাও. ইয়াছিন আলী, হাফেজ শওকত, আমানুল্লাহ, শহীদুল হক সিরাজী, গউছুল আযম। সভায় শেষে মোনাজাত পরিচালনা করেন মাও. নজরুল ইসলাম। এর আগে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা শিশু একাডেমি: বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ হতে মধ্যম আয়ের দেশে উত্তরণের যোগ্যতা অর্জনের ঐতিহাসিক সাফল্য উদ্যাপন উপলক্ষে প্রতিযোগিতা, পুরস্কার বিতরণ ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান-২০১৮ অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকালে বাংলাদেশ শিশু একাডেমি সাতক্ষীরা জেলা শাখার আয়োজনে জেলা শিশু একাডেমির হলরুমে জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা শেখ আবু জাফর মো. আসিফ ইকবালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাতক্ষীরা দিবা নৈশ কলেজের প্রভাষক মোশতাক আহমেদ, পিটিআইযের ইন্সট্যাক্টর শুভেন্দু কুমার দাস, শিক্ষক পল্টু বাসার ও মনিরুজ্জামান ছট্ট প্রমুখ। এসময় বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী ও অভিভাবকরা উপস্থিত ছিলেন। সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন জেলা শিশু একাডেমির লাইব্রেরিয়ান শেখ রফিকুল ইসলাম রফিক।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন