মেয়র প্রার্থী নিয়ে খুলনা জাপায় ক্ষোভ চরমে


জানুয়ারি ২৯ ২০১৭

স্টাফ রিপোর্টার : খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে আনকোরা একজন প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেছে জাতীয় পার্টি। দলে প্রবেশ করেই তিনি হয়েছেন মেয়র প্রার্থী। আর এতেই ক্ষোভে ফুসছেন খুলনার নেতাকর্মীরা। মুখে পার্টির চেয়ারম্যানের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানালেও বিষয়টি একেবারেই মেনে নিতে পারছেন না তারা। ফলে গণপদত্যাগের সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছেন খুলনার নেতাকর্মীরা। এ বিষয়ে নেতাকর্মীদের বৈঠকও চলছে দফায় দফায়।

শনিবার বননীর নিজ কার্যালয়ে খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী হিসাবে মুশফিকুর রহমানের নাম ঘোষণা করেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। এখানেই এরশাদ এর হাতে ফুল দিয়ে বিএনপি থেকে জাতীয় পার্টিতে যোগদান করেন স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মুশফিকুর রহমান।

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি এস এম ফয়সল চিশতীর সভাপতিত্বে যোগদান অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য দেন- জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জি এম কাদের ও প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভরায়।

এদিকে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র প্রার্থী হিসেবে মুশফিকুর রহমানের নাম ঘোষণা করার পর থেকেই খুলনায় জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীরা দফায় দফায় বৈঠক শুরু করেছেন। তারা অনেকেই পার্টি চেয়ারম্যানের এই সিদ্ধান্তের সরাসরি বিরোধী করেছেন আবার অনেকে কৌশল অবলম্বন করছেন।

খুলনা জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি ও সিটি কর্পোরেশনের গত নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী শফিকুল আলম মধু বলেন, পার্টির চেয়ারম্যান যা ভালো বুঝেছেন তাই করেছেন। তার এই সিদ্ধান্তকে আমাদের মেনে নিতে হবে।

নগর জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক এবং আগামী নির্বাচনে মেয়র পদ প্রত্যাশী মোঃ তরিকুল ইসলাম বলেন, আমরা প্রয়োজনে গণ পদত্যাগ করবো।

দপ্তর সম্পাদক এম এ আল মামুন বলেন, এই বিষয়ে নেতাকর্মীদের নিয়ে বৈঠক করে আজই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন