বেসরকারি ত্রাণ কার্যক্রম : জেলা প্রশাসনের প্রেস বিজ্ঞপ্তি


মে ১২ ২০২০


সাতক্ষীরা জেলার ৪ জন সংসদ সদস্য নিজ নিজ নির্বাচনী এলাকায় ব্যাক্তিগত তহবিল থেকে নিজেরা ত্রাণ সহায়তা চালিয়েছেন এবং মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। জেলা প্রশাসক স্বল্প পরিসরে ব্যাক্তিগত তহবিল থেকে কিছু মানুষকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন। জেলা প্রশাসন ইফতার মাহফিলের বাৎসরিক ব্যয়ে এবার কর্মহীন ২০০ পরিবারের মাঝে খাদ্য ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেছে। জেলা পুলিশ নিজস্ব অর্থায়নে ব্যাপকভিত্তিক ত্রাণ কার্যক্রম পরিচালনা করেছে। এছাড়াও বিভিন্ন ব্যাক্তি প্রতিষ্ঠান ত্রাণ সহায়তা নিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। প্রত্যেক ব্যাক্তি ও প্রতিষ্ঠান ভিত্তিক দান অনুদানের একটি ডাটাবেসের কাজ চলমান রয়েছে। জেলা আওয়ামী লীগ জেলা সদর ও বিভিন্ন উপজেলায় অসহায় কর্মহীন মানুষের মাঝে ত্রাণ সহায়তা পৌঁছে দিয়েছেন। এছাড়াও, বিভিন্ন প্রগতিশীল রাজনৈতিক দল ও অঙ্গসংগঠনসমূহ মানুষের পাশে ত্রাণ নিয়ে দাঁড়িয়েছেন। জেলা পরিষদ জেলা সদরে এবং উপজেলাভিত্তিক সদস্যের মাধ্যমে নিজস্ব অর্থায়নে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছেন। সাতক্ষীরার বাস-মিনিবাসমালিক সমিতির নিজস্ব অর্থায়নে ৫,৬০,০০০ টাকায় ১০০০ জন বাস-মিনিবাস শ্রমিকের মাঝে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়েছে। সাতক্ষীরা জেলা ট্রাক মালিক সমিতির অর্থায়নে ১৫৫০ জন ট্রাক শ্রমিকের মাঝে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর আহবানে সাড়া দিয়ে সরকারি সহায়তার পাশাপাশি মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন বিভিন্ন ব্যাক্তি ও প্রতিষ্ঠান। সিটি ব্যাংকের সৌজন্যে করোনা ভাইরাস প্রাদুর্ভাবে কর্মহীন ৫৫২ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। জেলা প্রশাসক এস এম মোস্তফা কামাল এর ব্যবস্থাপনায় সাতক্ষীরার আরা সংস্থার বৃদ্ধাশ্রমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর উপহার খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেয়া হয়েছে।

বেসরকারি ত্রাণ তহবিলের তথ্যঃ
সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের কার্যালয় ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার এর অফিসে ত্রাণ তহবিল খোলা হয়েছে। জেলা প্রশাসকের ত্রাণ তহবিলে জেলা প্রশাসকের ঈদ বোনাস, জেলা ও উপজেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের ১ দিনের বেতন সমপরিমান অর্থ, জেলা কৃষি বিভাগ তাদের ১ দিনের বেতন সমপরিমান অর্থ ত্রাণ তহবিলে আর্থিক সাহায্য হিসেবে প্রদান করেছেন। সাবেক সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার শেখ মুজিবুর রহমান ১ লক্ষ টাকা নগদ অনুদান দিয়েছেন।
সাতক্ষীরা জেলার সকল উপজেলায় বেসরকারি ত্রাণ তহবিল গঠন করা হয়েছে। উপজেলা পর্যায়ে কর্মরত সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারী তাদের একদিনের বেতন সমপরিমাণ অর্থ, উপজেলা চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান ও সদস্যগণ তাদের বেতন এবং প্রবাসী ও ধর্ণাঢ্য ব্যবসায়ীগণ তাদের নিজ নিজ সামর্থ্য অনুযায়ী সাহায্য প্রদান করছেন। এ জেলাতে বেসরকারি ত্রান তহবিলে মোট আর্থিক সাহায্যের পরিমাণ ৪৬,৬৫,০০০/- টাকা । আশাশুনি উপজেলায় ১১,৮৪,০০০/- টাকা, দেবহাটা উপজেলায় ৩,৭০,০০০/- টাকা, কালিগঞ্জ উপজেলায় ১৬,০০,০০০/- টাকা, শ্যামনগর উপজেলায় ৭,২০,০০০/- টাকা, কলারোয়া উপজেলায় ১,৪৩,০০০/- টাকা, তালা উপজেলায় ৪,৭৪,০০০/- টাকা, সাতক্ষীরা সদর উপজেলায় ১,৭৪,০০০/- টাকা আর্থিক সহায়তা পাওয়া গেছে ।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন