শ্যামনগরের খবর


জুলাই ২৫ ২০১৯

কাশিমাড়ী ইউনিয়ন পরিষদে উপ-নির্বাচন
শ্যামনগর ব্যুরো ঃ শ্যামনগর উপজেলার ২ নং কাশিমাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের ২ নং ওয়ার্ডে সংরক্ষিত আসনের সদস্য পদে উপ-নির্বাচন সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ন ভাবে গতকাল শেষ হয়েছে। জয়নগর আমিনিয়া হামিদিয়া ফাযিল মাদ্রাসা, কাশিমাড়ী আদর্শ মহিলা মাদ্রাসা ও ঘোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এ ৩ টি কেন্দ্রে নির্বাচন অনুস্ঠিত হয়। তিনটি কেন্দ্রে পাপিয়া হক, মোছাঃ জয়নব বিবি, তারিন বকুল তানিয়া, মোছাঃ খাজিদা খাতুন এ ৪ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দিতা করেন। তিনটি কেন্দ্র মোট ভোটার ৮৫৬১ জন। বৈধ ভোটারের সংখ্যা ৩৬৫৭ জন। পাপিয়া হক তালগাছ প্রতীকে ২০৫০ ভোট পেয়ে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকতম প্রতিদ্বন্দী মোছাঃ জয়নব বিবি হেলিকাপ্টার প্রতীকে পেয়েছেন ২০২৭ ভোট, তারিন বকুল তানিয়া পেয়েছেন ৩১০ ভোট, মোছাঃ খাদিজা খাতুন পেয়েছেন ২৭০ ভোট।

শ্যামনগরে সমাজ পরিবর্তনে যুবসংহতির ৩ দিন ব্যাপি প্রশিক্ষন সমাপ্ত
শ্যামনগর ব্যুরো ঃ লিডার্সের আয়োজনে ও মানুষের জন্য ফাউেেন্ডশনের সহযোগীতায় যুবসংহতি ও সামাজিক পরিবর্তন সহায়ক ভিত্তিমুলক তিনদিন ব্যাপি প্রশিক্ষন ক্যাম্প গতকাল ২৫ জুলাই শেষ হয়েছে। বিকাল ৫ টায় সমাপনী অনুষ্ঠিত হয়। শ্যামনগর মুক্তিযোদ্ধা ভবনের ৩য় তলায় অনুষ্ঠানে যুব সংহতির সভাপতি সাইফুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন- শ্যামনগর সদর ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাড. জহুরুল হায়দার বাবু। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, লিডার্সের ভারপ্রাপ্ত নির্বাহী পরিচালক অসিত কুমার মন্ডল, প্রোজেক্ট কো-অর্ডিনেটর শিপক চন্দ্র দে। তিনদিন ব্যাপি এ অনুষ্ঠানে ৯ টি ওয়ার্ড থেকে ২৭ জন যুবক-যুবতী এ প্রশিক্ষনে অংশগ্রহন করেন। অনুষ্ঠানের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন প্রোগ্রাম অফিসার সুলতা সাহা। উল্লেখ্য ২৩ জুলাই সকাল ১০ টায় এ প্রশিক্ষন ক্যাম্প উদ্বোধন করেন মুক্তিযোদ্ধা মাস্টার নজরুল ইসলাম। এসময় ভারপ্রাপ্ত মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার দেবীরঞ্জন মন্ডল উপস্থিত ছিলেন।

শ্যামনগরে ডাকাত দলের ৩ সদস্য গ্রেপ্তার
শ্যামনগর ব্যুরো ঃ শ্যামনগর থানা পুলিশের অভিযানে ভিন্ন ভিন্ন স্থান থেকে ডাকাত দলের ৩ সদস্য গ্রেপ্তার হয়েছে। উপজেলার ধুমঘাট গ্রামের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মহাদেব চন্দ্র মন্ডলের বাড়িতে গত- ২৩/০৫/১৯ তারিখে গভীর রাতে এক দুধর্ষ ডাকাতী সংগঠিত হয়। ৯ সদস্যের ডাকাত দল দেশীয় অস্ত্রে¿ সজ্জিত হয়ে বাড়ির মালিক সহ পরিবারের সদস্যদের অস্ত্রের মুখে বেঁধে ফেলে নগদ ২৫ হাজার টাকা, ৬ ভরি সোনার অলংকার, দুইটি দামি মোবাইল সেট সহ ৩ লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে যায়। এ ঘটনায় গৃহকর্তা মহাদেব চন্দ্র মন্ডল বাদী হয়ে অজ্ঞাত ৯/১০ জনের নামে শ্যামনগর থানায় ৩৯৫ ও ৩৯৭ ধারায় ডাকাতি মামলা করে। শ্যামনগর থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ আনিসুর রহমান মোল্যার নির্দেশনায় মামলার আইও এস,আই আব্দুর রাজ্জাক ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারের জোর চেষ্টা অব্যহত রাখে। গত ১৭/০৭/২০১৯ তারিখে ডাকাত দলের অন্যতম সদস্য উপজেলার কুলটুকরী গ্রামের লুৎফার গাজীর পুত্র বকুল গাজী (২৩) কে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়। বকুলের স্বীকারক্তি অনুযায়ী ডাকাত দলের সদস্য উপজেলার গৌরিপুর গ্রামের জবেদ আলী মিস্ত্রীর পুত্র আবুল খায়ের ওরফে বাবু মিস্ত্রী (২৫) কে পুলিশ গ্রেপ্তার করে। আবুল খায়ের ও বকুলকে রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের এক পর্যায়ে উপজেলার বাদঘাটা গ্রামের আবুল গাজীর ছেলে কবির (২৩) সহ আরও ৬ জন ডাকাত সদস্যের নাম অকপাটে স্বীকার করে। পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হওয়া বকুলের কাছ থেকে ১টি মোবাইল উদ্ধার করা হয় ও তার স্বীকারক্তি অনুযায়ী ঘটনাস্থলের অনতিদূরে খালের মধ্যে থেকে দুইটা বড় আকারের দেশীয় অস্ত্র উদ্ধার হয়। পুলিশ তদন্তের স্বার্থে বাকী ৬ জনের নাম গোপন রেখেছে বলে তদন্ত কর্মকর্তা জানান। শ্যামনগর থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ আনিসুর রহমান মোল্যা জানান, ঘটনার সাথে জড়িত বাকি আসামীদের গ্রেপ্তারের জোর তৎপরতা অব্যহত রয়েছে।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন