আশাশুনির খবর


জুন ১০ ২০১৯

 থানা পুলিশের অভিযানে আটক ৮

আশাশুনি প্রতিনিধি : আশাশুনি থানা পুলিশের অভিযানে গাঁজা ব্যবসায়ী ও ওয়ারেন্টের আসামিসহ আট জনকে আটক করা হয়েছে। আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবদুস সালামের নেতৃত্বে আশাশুনি থানা এলাকায় আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা, গ্রেফতারী পরোয়ানা তামিল ও বিশেষ অভিযান পরিচালনা কালে রবিবার দিবাগত রাতে তাদেরকে আটক করা হয়। এএসআই পূর্ণান্দহরি সঙ্গীয় ফোর্স এর সহায়তায় সিআর-২৩৬/১৭ (ওয়ারেন্ট) মূলে দিঘলারাইট গ্রামের মনিরউদ্দীন এর ছেলে বিল্লাল হোসন কে প্রতাপনগর বাজার হতে আটক কারেন। এসআই বিজন কুমার সরকার সঙ্গীয় ফোর্স এর সহায়তায় জিআর-৯৪/১৮ (ওয়ারেন্ট) মূলে মহাজনপুর গ্রামের ইনজিল সরদারের ছেলে রহমত কে মহাজনপুর বাজার হতে আটক করেন। এসআই নাজিম হোসেন সঙ্গীয় ফোর্স এর সহায়তায় জিআর-৯৪/১৮ (ওয়ারেন্ট) মূলে মহাজনপুর গ্রামের মৃত মজিবুর সরদারের ছেলে ইয়াছিন সরদারকে তার নিজ বাড়ী হতে আটক করেন। এএসআই হারুনুর রশিদ সঙ্গীয় অফিসার বিল্লাল হোসেন ও ফোর্স এর সহায়তায় ১০০ গ্রাম গাঁজা সহ আরার গ্রামের মৃত অজেদ আলীর ছেলে গোলাম রসুল ওরফে ছোট নুনু কে কাদাকাটি বলফিল্ডের পার্শ্ব হতে হাতেনাতে আটক করেন। এই সংক্রান্তে আসামীর বিরুদ্ধে আশাশুনি থানায় একটি মামলা রুজু করা হয়েছে। এএসআই জাকির হোসেন সঙ্গীয় ফোর্সের সহায়তায় সিআর-৩৮/১৯ (ওয়ারেন্ট) মূলে হিজলিয়া গ্রামের মৃত ছমির ঢালীর ছেলে ইউনুছ ঢালী কে তার নিজ বাড়ী হতে আটক করেন। এসআই খবির হোসেন সঙ্গীয় ফোর্সের সহায়তায় এফসিআর-৩/১৭ (ওয়ারেন্ট) মূলে ফকরাবাদ গ্রামের আছাদুল সরদারের ছেলে বিল্লাল সরদার কে তার নিজ বাড়ী হতে আটক করেন। এএসআই দেবাশীষ মন্ডল সঙ্গীয় ফোর্সের সহায়তায় জিআর-৪৬/১৮ (ওয়ারেন্ট) মূলে বসুখালী গ্রামের আলী বক্স এর ছেলে সিরাজুল ইসলাম কে তার নিজ বাড়ী হতে আটক করেন। এএসআই মাল্যা সোহেল সঙ্গীয় ফোর্সের সহায়তায় সিআর-৫৪/১৯ মূলে বুধহাটা গ্রামের আনার মোল্যার ছেলে জিয়ারুল ইসলাম কে তার নিজ বাড়ী হতে আটক করেন। আটককৃত সকল আসামীকে সোমবার সকালে চালান মোতাবেক বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

আশাশুনি থানার ওসি’র সাথে রিপোর্টার্স ক্লাব নেতৃবৃন্দের মতবিনিময়

আশাশুনি প্রতিনিধি : আশাশুনি থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আবদুস সালামের সাথে আশাশুনি রিপোর্টার্স ক্লাব নেতৃবৃন্দের সৌজন্য সাক্ষাত ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার দুপুরে ওসি’র কার্যালয়ে এ সৌজন্য সাক্ষাত ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এসময় ওসি মোঃ আবদুস সালাম সাংবাদিকদের বলেন, সাংবাদিকতা একটি মহান পেশা, সাংবাদিক হল সমাজের দর্পণ ও জাতির বিবেক। সাংবাদিকদের লেখনীয় মাধ্যমে দেশের মানুষ সকল সত্য ঘটনা জানতে পারে। তিনি আরও বলেন, আমি আশাশুনি থানাকে জঙ্গী, নাশকতা, মাদক ও দাললমুক্ত থানা হিসাবে গড়ে তুলব। আমার কাছে আসতে কোন মাধ্যম লাগবে না। আমি সব সময় সাধারণ মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাব। আশাশুনিতে যতদিন আমি ওসি হিসাবে থাকবো ততদিন থানায় কোন আসামী বাণিজ্য হবে না এবং আশাশুনির মানুষের প্রতি অযথা কোন পুলিশের হয়রানী হবে না। তিনি আশাশুনি উপজেলায় সন্ত্রাস, নাশকতা, মাদকমুক্ত, দালালমুক্ত অভিযানের পাশাপাশি অপরাধমুক্ত করে আশাশুনি থানাকে মডেল থানায় রুপান্তরিত করতে সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করেন। সৌজন্য সাক্ষাত মতবিনিময়কালে আশাশুনি রিপোর্টার্স ক্লাব সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, সহ সভাপতি সুব্রত দাশ, সাংগঠনিক সম্পাদক এম এম নুর আলম, সদস্য রাবিদ মাহমুদ ”ঞ্চল, বিএম আলাউদ্দীন, আবুল হাসান, সাংবাদিক গাজী ফরহাদ, আলিমুজ্জামান আলিম, শ্যামল বিশ্বাস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

বুধহাটা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটি গঠন
সোহাগ সভাপতি ॥ ইমন সম্পাদক

আশাশুনি প্রতিনিধি : আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষনা করা হয়েছে। আশাশুনি উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আসমাউল হোসাইন ও সাধারণ সম্পাদক সৌরভ রায়হান সাদ এর স্বাক্ষরিত এক পত্রে জানাগেছে, বুধহাটা ইউনিয়ন ছাত্রলীগ কমিটির মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ায় পূর্বের কমিটিকে বিলুপ্ত করে আগামী ১বছরের জন্য আংশিক কমিটি ঘোষনা করা হয়। সদ্য ঘোষিত কমিটিতে মোঃ আব্দুল্লাহ আল বায়জীদ (সোহাগ) কে সভাপতি ও মোঃ ইমন হোসেনকে সাধারণ সম্পাদক করে এ আংশিক কমিটি ঘোষনা করা হয়। কমিটির অন্যান্য সদস্যরা হলেন, সহ সভাপতি দেলোয়ার হোসেন নয়ন, জাহিদ হাসান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন, তানভীর রায়হান, সাংগঠনিক সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম, আশিক রায়হান সাজিদ, প্রচার সম্পাদক মোঃ আব্দুল্লাহ, দপ্তর সম্পাদক রায়হান হোসেন, প্রকাশনা সম্পাদক শাওন হোসেন, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক ফয়সাল হোসেন, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক সবুজ হোসেন, সমাজসেবা সম্পাদক মাহমুদুল হাসান ফিরোজ, ক্রীড়া সম্পাদক সানোয়ার হোসেন ও পাঠাগার বিষয়ক সম্পাদক সুজন হোসেন।
আশাশুনির তেতুলিয়ায় জামে মসজিদ উদ্বোধন

আশাশুনি প্রতিনিধি : আশাশুনি উপজেলার কাদাকাটি ইউনিয়নের তেতুলিয়া আদর্শ গ্রামে জামে মসজিদ উদ্বোধন করা হয়েছে। সোমবার সকালে তেতুলিয়া আশ্রায়ন প্রকল্প-২ আদর্শ গ্রামে এ মসজিদ উদ্বোধন করা হয়। আদর্শ গ্রামের মানুষের সালাত আদায়ের সুবিধার কথা বিবেচনা করে, এলাকার মানুষের চাহিদার প্রতি গুরুত্ব দিয়ে মসজিদের শুভ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে মসজিদের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন, সমাজ সেবক রাজনীতিবিদ মিজানুর রহমান মন্টু। এসময় দৈনিক কাফেলার বড়দল প্রতিনিধি আল-আমিন, আশ্রায়ন প্রকল্প-২ কমিটির সাধারণ সম্পাদক গোলাম রসুল, সদস্য আঃ কুদ্দুছ, আজিজুল ইসলাম, পাঞ্জান আলি, লিটন, বাবু, জাকির, রইচ উদ্দিন মোড়ল প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

শোভনালীতে চাঁদা না দেওয়ায়
ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে জখম

আশাশুনি প্রতিনিধি : আশাশুনি উপজেলার শোভনালীতে দাবীকৃত চাঁদা না দেওয়ায় এক ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে জখম ও টাকা ছিনিয়ে নেয়া হয়েছে। আহত ব্যবসায়ীকে হাসপাতালে ভর্তি ও থানায় লিখিত এজাহার দাখিল করা হয়েছে। হাজীপুর গ্রামের মৃত তছির উদ্দিন গাজীর পুত্র আহসান গাজী বদরতলা সড়কের ‘বাবলা বাগান’ নামক স্থানে কফি হাউজ নামে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান স্থাপন করে ব্যবসা করে আসছেন। বাঁশিরামপুর গ্রামের আমিনুর রহমান গাজীর পুত্র আল-আমিন, জমাত আলি গাজীর পুত্র জুন্নুন গাজী ও আমিনুর, কাটাখালী গ্রামের আপ্তাব গাজীর পুত্র রবিউল ইসলাম ব্যব্সায়ী আহসানের কাছে ব্যবসা করতে হলে ৫০ হাজার টাকা চাঁদার দাবি করে আসছিল। টাকা দিতে অস্বীকার করায় তারা তাকে বিভিন্ন ভাবে হুমকী-ধামকী দিতে থাকে। সোমবার (১০ জুন) সকাল ৮ টার দিকে আহসান দোকানের মালামাল ক্রয়ের জন্য বদরতলা বাজারে গিয়ে মজিদ এর মুদি দোকানের সামনে গেলে চাঁদাবাজরা তার পথরোধ করে এখনি চাঁদার টাকা দিতে হবে বলে দাবী করলে তিনি চাঁদা দিতে অস্বীকৃতি জানান। সাথে সাথে তারা লোহার রড, শাবল দিয়ে তার মাথা, হাত, পা ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে বেধড়ক আঘাত করে রক্তাক্ত জখম করে পকেটে থাকা ব্যবসার মালামাল ক্রয়ের ৩০ হাজার ২০০ টাকা নিয়ে নেয়। পাশের লোকজন এগিয়ে গেলে জীবন নাশের হুমকী ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করে আক্রনকারীরা কেটে পড়ে। তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় আশাশুনি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত আহসানের ভাই সিরাজুল ইসলাম বাদী হয়ে থানায় লিখিত এজাহার দাখিল করেছেন। পুলিশ ঘটনাস্থান পরির্দশন করেছেন।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন