দেবহাটায় শিশুকন্যা গৃহবধুকে পিটিয়ে জখমের অভিযোগ


মে ১১ ২০১৯



নিজস্ব প্রতিবেদক :
দেবহাটায় মাদকসেবীদের প্রশ্রয় না দেওয়ায় শিশুকন্যা ও গুহবধুকে পিটিয়ে জখমের অভিযোগ উঠেছে। গত ১০এপ্রিল বিকেল সাড়ে ৫টায় দেবহাটা উপজেলার গোবিন্দপুর এলাকায় এঘটনা ঘটে।
আহতরা হলেন, একই এলাকার বিধান বাছাড়ের স্ত্রী রেনুকা বাছাড় ও তার শিশু কন্যা সোনালী বাছাড়।
বর্তমানে গুরুতর আহত রেনুকা বাছাড় জানান, তার স্বামী একজন দ্বীন মজুর। তিনি বিভিন্ন সময়ে ধান কাটাসহ দ্বীন মজুরির কাজ করার জন্য বাড়ির বাইরে থাকেন। তাদের বসতবাড়িটি ফাঁকা স্থানে হওয়ায় একই এলাকার চিহ্নিত মাদকসেবী পরিতোষ মন্ডলের পুত্র বিপ্লব মন্ডল, তারক সানার পুত্র স্বপন সানা, ভোলা মন্ডলের পুত্র সঞ্জয় মন্ডল, ভবেন সানার পুত্র জয়দেব সানা মাদক সেবন করার জন্য তাদের বাড়িটি ব্যবহার করার চেষ্টা করে। এতে বাধা দিত। এছাড়া রেনুকা বাছাড়ের বড় কন্যা স্বপ্নাকে বিপ্লব ও সঞ্জয় প্রায় কু প্রস্তাব দিত। কিন্তু স্বপ্না তাদের কুপ্রস্তাবে রাজি না হয়ে বিষয়টি তার মাতা কে অবহিত করেন। মাতা রেনুকা বাছাড় তাদের অপকর্মের প্রতিবাদ করলে তারা ক্ষিপ্ত হয়ে ওঠে এবং রেনুকা ও তার দুই কন্যা সন্তানকে বিভিন্ন হয়রানি করার হুমকি প্রদর্শন করতে থাকে। এক পর্যায়ে গত ১০এপ্রিল বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে চিহ্নিত মাদকসেবী পরিতোষ মন্ডলের পুত্র বিপ্লব মন্ডল, তারক সানার পুত্র স্বপন সানা, ভোলা মন্ডলের পুত্র সঞ্জয় মন্ডল, জয়দেব সানার পুত্র ভবেন সানা ও পরিতোষের স্ত্রী বাসন্তি মন্ডল দেশীয় অস্ত্রে শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে রেনুকা বাছাড়ের বাড়িতে হামলা চালায়। এসময় তারা রেনুকার বাড়িঘর ভাংচুুর করে বাড়িতে থাকা নগত ৮৫ হাজার টাকাসহ প্রায় লক্ষাধিক টাকার স্বর্ণের গহনা লুটপাট করে। এছাড়া রেনুকা পিটিয়ে জখম করে এবং পানিতে ফেলে তার দুই বছরের শিশুকন্যা সোনালীকে হত্যা চেষ্টা করে তারা। সে সময় রেনুকার ডাক চিৎকারে স্থানীয়রা ছুটে এসে তাদের উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। বর্তমানে রেনুকার অবস্থা আশংকা জনক বলে জানিয়েছেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। এঘটনায় একটি মামলার প্রস্তুতি চলছিল বলে জানিয়েছেন আহত রেনুকা বাছাড়।



শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন