সাতক্ষীরায় নকল নবীশ এসোসিয়েশন’র মানববন্ধন : রাজস্ব খাতে ৩য় শ্রেণির কর্মচারীর মর্যাদাসহ চাকুরী স্থায়ী করণের দাবী


মে ৫ ২০১৯


স্টাফ রিপোর্টার: এক্সট্রা মোহরার (নকল নবীশ) এসোসিয়েশন সাতক্ষীরা জেলা শাখার মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। রোববার দুপুরে সাতক্ষীরা সদর সাব রেজিস্ট্রী অফিসের সামনে এ মানববন্ধন কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন এক্সট্রা মোহরার (নকল নবীশ) এসোসিয়েশ জেলা শাখার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দীন আহমেদ, প্রচার সম্পাদক আমির হামজা, সাংগঠনিক সম্পাদক মহিব্বুল্লাহ, কোষাধ্যক্ষ আব্দুর রউফ, সদর উপজেলা শাখার সভাপতি আমানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হাসান লাল্টু, জেলা মহিলা সম্পাদিকা জেসমিন নাহার, সদস্য কামরুন্নাহার, সুজয় মল্লিক, শিরিন আক্তার, গোলজার প্রমুখ। বক্তারা বলেন, ‘আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রাণায়য়ের আইন ও বিচার বিভাগের নিয়ন্ত্রাধীন নিবন্ধন অধিদপ্তরের আওতাভুক্ত ৬১টি জেলা সদর মহাফেজখানা সহ ৫০৯টি সাব-রেজিস্ট্রি অফিসে কর্মরত ১৫ হাজার এক্সট্রা মোহরার (নকল নবীশ) জনগণের রেজিস্ট্রিকৃত দলিল বালাম বহিতে লিপিবদ্ধ করে অবিনাসযোগ্য রেকর্ড সৃষ্টি করে থাকি কিন্তু অস্থায়ী ভাবে কোন সুযোগ সুবিধা পায়না। বাড়ি ভাড়া, চিকিৎসাভাতা, শিক্ষা ভাতা, সহায়ক ভাতা ৩টি মৌলিক অধিকার এবং পবিত্র ঈদে বোনাস, ভিন্ন ধর্মীয় উৎসব ভাতাসহ সরকারি যাবতীয় সুবিধা থেকে বঞ্চিত। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মরনাপন্ন হলে তিনি এক্সট্রা মোহরারদের চাকুরী স্থায়ী করার জন্য সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দিয়েছিলেন। কিন্তু স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে অন্যান্য বিভাগের এক্সট্রা মোহরারদের স্থায়ী হলেও আজ অবধি রেজিস্ট্রেশন বিভাগে আমরা দীর্ঘদিন ধরে বঞ্চিত আছি। ১৯৭৩ সালের বঙ্গবন্ধুর ঘোষণা এবং ১৯৮৪ সালের ১৬-ই আগস্ট এর জনসভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সমর্থন এবং ১৯৮৭ সালে আইন মন্ত্রাণালয়ের গঠিত কমিটির ১৬ (ক) সুপারিশ মালার আলোকে বর্তমান সরকারের ঘরে ঘরে কর্মসংস্থান সৃষ্টির নির্বাচনী অঙ্গিকার বাস্তবায়নের লক্ষ্যে এবং এক্সট্রা মোহরারদের (নকল নবীশ) বর্তমানে জাতীয় বেতন স্কেলের আওতায় আনয়ন পূর্বক সরকারি রাজস্ব খাতের ৩য় শ্রেণির কর্মচারীর মর্যাদা দিয়ে চাকুরী স্থায়ী করনের ঘোষণার দাবী জানান তারা।’ এসময় এক্সট্রা মোহরার (নকল নবীশ) এসোসিয়েশন জেলা ও সদর উপজেলা শাখার নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন