সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ নিরাপত্তাহীনতায় কালিগঞ্জের কলেজ ছাত্র শেখ হেলাল


এপ্রিল ২৭ ২০১৯


নিজস্ব প্রতিনিধি :
কালিগঞ্জের রতনপুর ইউনিয়নের মহেশকুড় গ্রামের কলেজ ছাত্র শেখ হেলাল নিরাপত্তাহীনতায় দিন কাটাচ্ছেন। তাকে পুকুরে পুতে ফেলার হুমকি দিয়েছে প্রতিপক্ষ। এমনকি বংশে বাতি দেওয়ার মতো কাউকেই রাখবে না বলে হুমকি দিয়েছে তারা।
শনিবার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করে এ কথা বলেন শেখ হেলাল। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন তাদের সাথে প্রতিবেশি শেখ মুজিবর রহমানের পরিবারের জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। এই জমি নিয়ে আদালতে মামলায় শেখ হেলাল পরিবার ডিক্রি লাভ করে। সে অনুযায়ী তারা ওই জমিতে ভোগ দখলে রয়েছেন। হাল ডিপি ২৫৪ নম্বর খতিয়ানের ২৬০,২৬২,৪০৫ চূড়ান্তভাবে তার পরিবারের নামে রেকর্ড হয়। কোবালা দলিল বুনিয়াদে এসএ ২১ নম্বর রেকর্ডে অংশ কালিগঞ্জ সহকারির জজ আদালতে রেকর্ড সংশোধনের মামলা করে শেখ হেলাল পরিবার দুই তরফা ডিক্রি পায়। বিবাদী পক্ষ আপিল করলেও তারা ডিক্রি লাভ করেন। বর্তমানে সেটলমেন্ট জরিপে ডিএস এবং আর এস রেকর্ডও লাভ করেন শেখ হেলালের পরিবার।
লিখিত বক্তব্যে শেখ হেলাল বলেন গত ১৯ এপ্রিল ওই জমির পুকুর থেকে ধান ক্ষেতে পানি সেচ দেওয়ার সময় বাধা দেয় একই গ্রামের আশরাফ আলি, শোকর আলি, শেখ বাবুল, শেখ হাসেম আলি ও লাইলি বেগম। তারা তাদেরকে গালিগালাজ করে। তাদের শ্যালো মেশিন বন্ধ করে দেয়। তারা পুকুরে নামতে নিষেধ করে। তিনি জানান শেখ হেলালের দাদা শেখ আবু তাহের এ ব্যাপারে কালিগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দেন। পুলিশ দুইপক্ষকে ডাকলেও প্রতিপক্ষ তাদের সমর্থনে কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারেনি।
শেখ হেলাল অভিযোগ করে বলেন গত ২৫ এপ্রিল সকালে প্রতিপক্ষের লোকজন তার নিজের মুদি দোকানে এসে প্রাণ নাশের হুমকি দিয়ে গেছে। এই পুকুরে এলে তাদের পুতে ফেলা হবে বলে হুমকি দেওয়া হয়েছে। এমনকি মিথ্যা মামলায় তাদের ফাঁসিয়ে দেওয়া হবে বলেও জানিয়েছে। তারা শেখ হেলালের গলার কলার ধরে দোকান থেকে টেনে বের করে এনে মারধর করে। এ বিষয়ে কালিগঞ্জ থানায় আরও একটি সাধারন ডায়েরি করা হয়েছে।
শেখ হেলাল এর প্রতিকার দাবি করে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার আহবান জানান। তিনি বলেন আমি এর পর থেকে নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন