সাতক্ষীরার উপকূলীয় এলাকায় ভেড়ি বাধের বেহাল দসা


এপ্রিল ৬ ২০১৯


আব্দুল জলিল ঃ নদী ,নৌকা, জাল আর মাছ এদের নিত্য দিনের সঙ্গী। মানবতা এখানে বিপন্ন। দুবেলা দুমুঠো খেয়ে পরে বেচে থাকার জন্য এরা জীবনের সাথে সংগ্রাম। সাতক্ষীরা উপকূলীয় এলাকার এই মানুষ গুলো জীবন কেড়ে নিয়ে ছিল আইলা ও সিডর । মুহুর্তেও মধ্যে লন্ডভন্ড হয়ে গিয়েছিল তাদের জীবন। বাড়িঘর,হাস মুরগী, ফসল, ঘের সবকিছু ভেসে গিয়ে ছিল। প্রান হারিয়ে ছিল অসংখ্যা মানুষ। সেই জের এখনও কাটিয়ে উঠতে পারিনি তারা। সহায় সম্বল হরিয়ে মানবতার জীবন যাপন করছে । কিন্তু আজও বাধ গুলো সংস্কার হয়নি। ভাঙ্গন আতঙ্কে দিন কাটে তাদের। যে কোন মূহুর্তে বাধ ভেঙ্গে আবার সব কিছু নদীতে বিলিন হয়ে যেতে পারে। জনপ্রতিনিধিরা বলছে বর্ষার আগে বাধ মেরামব করতে হবে। পাউবো কর্মকর্তারা বলছে অস্থায়ী ভাবে বাধ সংস্কার করার টেন্ডার হয়ে গেছে। তবে কাজ শুরু হয়নি আজও ।
উপকূলীয় এলাকায় ঘুরে জানাযায়, দেশের দক্ষিণ-পশ্চিশ অঞ্চলের সুন্দরবন ঘেষা উপকূলীয় জেলা সাতক্ষীরা । এই জেলার শ্যামনগর. আশাশুনি দূযোগ প্রবন এলাকা । নদীতে মাছ ধরে জীবন জীবিকা নির্বহ করে তারা। দুবেলা পেট ভরে খাওয়ার জোটে না তাদের। আইলা ও সিডর তাদের সবকিছু কেড়ে নিযেছে । সেই ক্ষত আজও কাটিয়ে উঠতে পারিনি । আজ আবার তাদেও ঘুম কেড়ে নিয়েছে পানি উন্নয়ন বোডের ভেড়ি বাধ । বাধে ভাঙ্গন প্রকট আকার ধারণ করেছে । সব চেয়ে বেশি ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে কপোতক্ষও খোলপেটুয়া নদীর গাবুরা, পদ্মপুকুর, কাশিমাড়ি,ও প্রতাপনগর এলাকায়। যে কোন মুহুর্তে এই এলাকার বাধ ভেঙ্গে যেতে পারে। তবে মানুষের মত বাধ গুলো লড়াই করে টিকে আছে । জোয়ার বেশি হলে বাধ আর ধরে রাখা যাবে না । এলাকার জনপ্রতিনিধিরা বলছে বর্ষার আগে বাধ মেরা মত করতে হবে । আর পানি উন্নয়ন বোডের কর্মকর্তারা বলছে অস্থ্ায়ী ভাবে বাধ মেরা মতের জন টেন্ডের হয়ে গেছে ।
শ্যামনগরের গাবুরা এলাকার মতিন,আকবার ,রুহুল জানান, আগে দুইবার তারা ভেসে গেছে, অবদা বাধের ধারে খুপরি ঘরে বসবাস করে। এবার ভাঙ্গলে তাদের আর এদেশে বসবাস হবে না । সব হারিয়ে তারা এখন পথে বসেছে । তারা স্থ্য়াী ভবে বাধ নির্মানের জন্য সরকারের কাছে দাবি জানান ।
শ্যামনগর কাশিমাড়ি ইউনিয়ন চেয়ারম্যান এস এম আব্দুর রউফ জানান, উপকূলীয় বাধ গুলো খুবই ঝুকির মধ্যে রযেছে । আইলা ও সিডরের সময় যে লবন পানি ডুকে ছিল সেই রেষ এখন ও কাটিয়ে উঠতে পারিনি । সামনে কাল বৈশাকি ঝড় আসতেছে । কাশিমাড়ি উইনিয়নের ঝাপালি এলাকায় ভেড়ি বাধ ভেঙ্গে যায় তবে শ্যামনগর ও কালিগঞ্জের বিস্তর্ণ এলাকা প্লাবিত হবে। বষার আগে এই বাধ মেরামত করতে হবে ।
সাতক্ষীরার শ্যামনগর পানি উন্নয়ন বোডের উপসহকারি প্রকৌশলী মাসুদ রানা জানান, অস্থায়ী ভাবে বাধ সংস্কারের জন্য টেন্ডার হয়ে গেছে । স্থায়ী ভাবে বাধ মেরামতে তাদের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছে

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন