ইউপি চেয়ারম্যানের ওপর হামলার প্রতিবাদে অবরোধ, হরতাল কালিগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যানকে গ্রেফতার দাবিতে আলটিমেটাম


মার্চ ২৮ ২০১৯

নিজস্ব প্রতিনিধি: বিষ্ণুপুর ইউপি চেয়ারম্যান রিয়াজুল ইসলামের ওপর হামলার প্রতিবাদে সদ্যনির্বাচিত কালিগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যান সাঈদ মেহেদীসহ তার সহযোগীদের গ্রেফতার দাবিতে ২৪ ঘন্টার আলটিমেটাম দিয়েছে আওয়ামী লীগ। কালিগঞ্জ উপজেলা ইউপি চেয়ারম্যান সমিতি এই দাবির সাথে একাত্মতা ঘোষনা করেছে। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে দুপুর ১ টা পর্যন্ত কালিগঞ্জ ফুলতলা এলাকায় সড়ক অবরোধ কর্মসূচি থেকে এই আলটিমেটাম দেওয়া হয়। এর আগে সকাল থেকে সেখানে হরতাল চলছিল। হরতালের কারণে সাতক্ষীরা থেকে শ্যামনগর সড়কে বাস চলাচল বন্ধ থাকে। বিকালে এক সংবাদ সম্মেলন করে পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষনা করা হবে বলে জানানো হয়। কালিগঞ্জের তারালি ইউপি চেয়ারম্যান আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক এনামুল হোসেন ছোট জানান, বুধবার রাতে বিষ্ণুপুর ইউপি চেয়ারম্যান রিয়াজুল ইসলাম মোটর সাইকেলে বাড়ি ফিরছিলেন। এ সময় সদ্য নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান সাঈদ মেহেদির নেতৃত্বে একদল সন্ত্রাসী কুশলিয়ায় তার ওপর দুই দফায় হামলা করে মারপিট করে। তারা তার গলায় পা চেপে রেখে হত্যার চেষ্টা করে। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কালিগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করে দেয়। বৃহস্পতিবার তাকে নিয়ে আসা হয় সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে। এ ঘটনার প্রতিবাদে কালিগঞ্জ আওয়ামী লীগের স্টিয়ারিং কমিটি ও উপজেলা চেয়ারম্যান সমিতি যৌথভাবে সড়ক অবরোধ ও হরতালের ডাক দেয়। এতে অংশ নেন উপজেলা নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে পরাজিত প্রার্থী শেখ আতাউর রহমান, স্বতন্ত্র প্রার্থী মেহেদি হাসান সুমন, মথুরেশপুর ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান, রতনপুর ইউপি চেয়ারম্যান আশরাফুল ইসলাম খোকন, ধলবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান শওকত হোসেন, জাসদ নেতা অধ্যক্ষ আশেক ই এলাহী, নিরঞ্জন পাল, পূজা উযাপন পরিষদ সভাপতি ও সম্পাদক অধ্যাপক সনৎ কুমার ও মিলন কুমারসহ অনেকেই। তারা বলেন যারা নৌকার পক্ষে কাজ করেছেন সাঈদ মেহেদি তাদের ওপর হামলা করেছেন।
তারা জানান ঘোড়া প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে জয়লাভের পর থেকে বিজয়ী স্বতন্ত্র প্রার্থী আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক সাঈদ মেহেদি নৌকার সমর্থকদের হুমকি দিয়ে আসছিলেন। এ বিষয়ে কালিগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দেওয়া হয়। চেয়ারম্যান সমিতির সভাপতি মথুরেশপুর ইউপি চেয়ারম্যান শওকত হোসেন বলেন, ‘সাঈদ মেহেদী ও হামলাকারীদের গ্রেফতার করার জন্য ২৪ ঘন্টার আলটিমেটাম দেওয়া হয়েছে’।
এ বিষয়ে জানতে ফোন করা হলে সদ্য নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারমান সাঈদ মেহেদী বলেন ‘আমি ঢাকায়। শুনেছি বুধবার রাতে রিয়াজ ভাই দুর্ঘটনায় পড়ে আহত হয়েছেন। তিনি ও তার সমর্থকরা আমার নামে যা বলছেন তা সঠিক নয়’। সাঈদ মেহেদী আরও বলেন, সত্যিকারে যদি কেউ তার ওপর হামলা করেই থাকে তবে তার বিচার হোক।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন