উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে মনোয়ন যাচাই বাছাই : চেয়ারম্যান পদে সদর- ২, শ্যামনগর-৩, তালা-২, কলারোয়া-২, দেবহাটা-৫, আশাশুনি-২, কালিগজ্ঞ-৩ বৈধ্য


ফেব্রুয়ারি ২৮ ২০১৯

https://dakshinermashal.com/

সাতক্ষীরায় ৫ম উপজেলা পরিষদ সাধারণ নির্বাচন ২০১৯ চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়াারম্যান পদপ্রার্থীদের মনোয়নপত্র যাচাই বাছাই সম্পন্ন হয়েছে। উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী শ্যামনগরে একজন ও তালা উপজেলায় একজনকে অবৈধ ঘোষণা করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১০ টা থেকে জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সাবির্ক ও রিটার্নিং অফিসার মো.বদিউজ্জামান সাতক্ষীরা সদর,আশাশুনি,কালিগঞ্জ ও দেবহাটা এই ৪ উপজেলার প্রর্থীদের মনোয়ন পত্র যাছাই বাছাই করেন।

সাতক্ষীরা সদরে উপজেলায় আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী আসাদুজ্জামান বাবু ও বিদ্রোহী প্রার্থী সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শওকত হোসেন। এবং ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ জন ও মহিলা ভাইসচেয়ারম্যান পদে দু’জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র যাচাই বাছাই করে বৈধতা ঘোষণা পেয়েছেন।

আশাশুনিতে চেয়ারম্যান পদে ২ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৮ জন ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ২ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। যাচাই বাছাইয়ে চুড়ান্ত ভাবে বৈধতা পেয়েছেন,

আশাশুনি উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও দুবার নির্বাচিত উপজেলা চেয়ারম্যান এ বি এম মোস্তাকিম ও বিদ্রহী প্রার্থী উপজেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান অ্যাড. শহিদুল ইসলাম পিন্টু। এবং ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী এস এম সাহেব আলি (উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগ সভাপতি), জি এম আক্তারুজ্জামান (উপজেলা আ’লীগ সহ-সভাপতি), এমডি ফিরোজ আহমেদ (ব্যবসায়ী), মতিলাল সরকার (উপজেলা কৃষকলীগ সাধারণ সম্পাদক), উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুস সামাদ বাচ্চু, উপজেলা কৃষকলীগ সভাপতি সাবেক চেয়ারম্যান স. ম সেলিম রেজা সেলিম ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান: মহিলা আওয়ামীলীগ ইউনিয়ন আহবায়ক ও উপজেলা পরিষদের সংরক্ষিত আসনের নির্বাচিত সদস্য মোছাঃ হেনা গাজী ও ইউনিয়ন যুব মহিলালীগ সাধারণ সম্পাদক মোসলেমা খাতুন।

কালিগঞ্জে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৭ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ জন বৈধ প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা পেয়েছেন। কালিগঞ্জে বৈধ প্রার্থী হলেন যারা আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনয়ন প্রাপ্ত উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে সাবেক সহকারী পুলিশ সুপার মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আতাউর রহমান, স্বতন্ত্রপ্রার্থী হিসেবে কালিগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাঈদ মেহেদী, ও কুশুলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের সদ্য পদত্যাগী চেয়ারম্যান শেখ মেহেদী হাসান সুমন।

পুরুষ ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা যুবলীগের সাবেক আহবায়ক ও উজ্জীবনী ইন্সটিটিউটের প্রধান শিক্ষক ইকবাল আলম বাবলু, মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার আব্দুল হাকিম, কালিগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি নাজমুল আহাছান, উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি জি,এম, জাহাঙ্গীর কবির, থানা আওয়ামীলীগে সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ডি,এম,সিরাজুল ইসলাম, মৎস্য ব্যবসায়ী আব্দুল হামিদ সরদার, জি,এম, আব্দুল কুদ্দুস, কালিগঞ্জ উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শেখ নাজমুল ইসলাম, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে থানা মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি জেবুন্নাহার জেবু, ধলবাড়িয়া ইউনিয়ন মহিলা আওয়ামীলীগের সভাপতি দিপালী ঘোষ, আফসানা বেগম, এবং বিষ্ণুপুর ইউনিয়নের ইউপি সদস্য ফারহানা।

দেবহাটা উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ৫ জন ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৫ জন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৪ প্রার্থী বৈধ ঘোষীত হয়েছেন। প্রর্থীরা হলেন আওয়ামী লীগ মনোনীত উপজেলা চেয়ারম্যান প্রার্থী আলহাজ্ব আব্দুল গনি, সাইদ মাহফুজুর রহমান, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান এ্যড. সম গোলাম মোস্তফা, বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান মাহবুব আলম খোকন।

ভাইস চেয়ারম্যান পদে উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মিজানুর রহমান মিন্নুর, যুবলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক মনিরুল ইসলাম মনি, জাতীয় পার্টির (জাপা) আনিছুর রহমান বকুল, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি হাবিবুর রহমান সবুজ

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে সাবেক মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা আওয়ামীলীগের সভানেত্রী মিসেস আমেনা রহমান, প্রিয়াংকা রানী, জিএম স্পর্শ এবং আফরোজা পারভীন।

এদিকে জেলা নির্বাচন অফিসের কার্যালয়ে সাতক্ষীরা জেলা নির্বাচন অফিসার নাজমুল হাসান সকাল ১০ টা থেকে তালা,কলারোয়া ও শ্যামনগর উপজেলা চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীদের মনোয়নপত্র যাচাই বাছাই করেন।

তালায় আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের জন্য মনোনয়ন মনোনয়ন পত্র ৩টি পদের বিপরীতে ১১ জন প্রার্থী জমা দিলেও চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী থেকে বাদ পড়েছেন জেলা আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা এসএম ফজলুল হক ।
জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা নাজমুল হাসান জানান, উপজেলা চেয়ারম্যান পদে বৈধ প্রার্থী হয়েছেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থী ঘোষ সনৎ কুমার, জেলা আওয়ামীলীগের উপ-প্রচার সম্পাদক প্রভাষক প্রণব ঘোষ বাবলু।

ভাইস চেয়ারম্যান (পুরুষ) পদে বৈধতা পেয়েছেন বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান ও তালা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ ইখতিয়ার হোসেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সরদার মশিয়ার রহমান, উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি আব্দুল জব্বার, উপজেলা কৃষকলীগের সদস্য সচিব মোঃ আমিনুজ্জামান ।
ভাইস চেয়ারম্যান (মহিলা) পদে বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান জেবুন্নেছা খানম, সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান মোস্তারী সুলতানা পুতুল, খেশরা ইউনিয়ন আওয়ামলীগের সদস্য মুরশিদা পারভীন পাপড়ি ও সাংবাদিক সাকিলা ইসলাম জুই ।

কলারোয়া উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে বৈধতা পেয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান ফিরোজ আহমেদ স্বপন (আওয়ামী লীগ মনোনীত) ও আমিনুল ইসলাম লাল্টু।এছাড়া, ভাইস চেয়ারম্যান পদে মো. আরাফাত হোসেন, রবিউল আলম মল্লিক ও কাজী আসাদুজ্জামান শাহজাদা ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে সেলিনা আনোয়ার ময়না, শাহনাজ নাজনীন খুকু ও রোজিনা সুলতানা দুলালী।

শ্যামনগর উপজেলায় যে সকল প্রার্থী বৈধতা পেয়েছেন তারা হলেন চেয়ারম্যান পদে আতাউল হক দোলন (আওয়ামী লীগ মনোনীত), বিএনপির জিএম সাদিকুর রহমান সাদেম ও জিএম ওসমান গনি বৈধ প্রার্থী ঘোষনা করলেও আয়কর দাখিল না করার কারণে চেয়ারম্যান পদ থেকে অবৈধ ঘোষীত হলেন জিএম আজিবর রহমান। ভাইস চেয়ারম্যান পদে বৈধতা পেয়েছেন জিএম কামরুজ্জামান, মো. শহিদুজ্জামান, মো. মিজানুর রহমান, মো. শাহজালাল ও স. ম আবদুস সাত্তার। মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়েছেন নাদিজা সুলতানা, পাপিয়া হক ও নুরজাহান পারভীন।

উল্লেখ্য আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বচনে প্রার্থী প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৭ই মার্চ ও প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে ৮ই মার্চ বলে জানান অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সাবির্ক ও রিটার্নিং অফিসার মো.বদিউজ্জামান।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন