সাতক্ষীরায় আবৃত্তি ও উচ্চারণ কর্মশালায় পুলিশ সুপার সাজ্জাদুর রহমান


ডিসেম্বর ১৭ ২০১৮


বিশেষ প্রতিনিধি: শিল্পকলা’র যতগুলো গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম আছে তার মধ্যে আবৃত্তি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। ভাল আবৃত্তির জন্য জরুরী হলো ভাল উচ্চারণ। আর তা যদি শুরু হয় শৈশব কৈশোর থেকে তাহলে আবৃত্তি ভিত্তি হয় মজবুত। আর এটি জরুরী হচ্ছে ছোটবেলা থেকে পারিবারিক পরিমন্ডলে শুদ্ধ পরিচর্যা। সোমবার সকাল ১০টা থেকে শুরু হওয়া আবৃত্তি ও উচ্চারণের কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার মো: সাজ্জাদুর রহমান এসব কথা বলেন। তিনি বলেন এ শিল্প সংস্কৃতির উন্নয়নমুলক কর্মকান্ডে সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সবসময় পাশে থাকবে। মানবতার কল্যানকর সব কাজে পুলিশ প্রশাসন সবসময় সহযোগিতার হাত বাড়াবে।
সাতক্ষীরার সাংস্কৃতিক সংগঠন প্রাণকেন্দ্র আয়োজিত এ কর্মশালায় প্রশিক্ষক ছিলেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের আকাশবাণী ও ডিডি মেট্রো’র জনপ্রিয় সঞ্চালক ও আবৃত্তিকার পৌলমী ভট্টাচার্য। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রাণকেন্দ্র’র সংগঠক এবং সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক আমিনা বিলকিস ময়না। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, সাতক্ষীরা জেলা শিল্পকলা একাডেমী’র সদস্য সচিব মোসফিকুর রহমান মিল্টন, দেবহাটা’র সদস্য সচিব ও মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নাজমুন নাহার। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাংবাদিক শরীফুল্লাহ কায়সার সুমন।
অনুষ্ঠানে প্রাণকেন্দ্রে’র পক্ষ থেকে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের আকাশবাণী ও ডিডি মেট্রো’র জনপ্রিয় সঞ্চালক ও আবৃত্তিকার পৌলমী ভট্টাচার্যকে সম্পাননা স্মারক প্রদান করা হয়। পুলিশ সুপার মো: সাজ্জাদুর রহমান ও উপস্থিত অতিথিবৃন্দ এ সম্মাননা স্মারক প্রশিক্ষকের হাতে তুলে দেন। উদ্বোধনের পর আবৃত্তিকার পৌলমী ভট্টাচার্য একঘন্টা’র আবৃত্তি পরিবশেন করে। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন স্কুলের ৩২জন শিক্ষার্থী প্রশিক্ষনার্থী হিসেবে অংশগ্রহণ করে।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন