জামায়াত বিএনপির সাথে আতাত করে লক্ষ লক্ষ টাকার বাণিজ্য এস আই রোকন মিয়ার


নভেম্বর ২৯ ২০১৮


শ্যামনগর ব্যুরো ঃ শ্যামনগর থানার এস আই রোকন মিয়ার অর্থ ও চাঁদাবজির দাপটে সাধারন নিরহ মানুষ ভয়ে বাড়ি থাকতে পারছে না। সূত্রে জানা যায়, এস আই রোকন শ্যামনগর থানায় যোগদান করার পর থেকে জামায়াত বিএনপির নেতাকর্মীদের সাথে আতাত করে নিরিহ মানুষদের কাছ থেকে অন্যায় ভাবে জোর পূর্বক অর্থ আদায়ে ব্যস্থ। বর্তমান সে ভুরুলিয়া বিটে দায়িত্ব পাওয়ায় জামায়াত শিবিরে সেক্রেটারী, সভাপতি, আমীর সহ নাশকতা মামলার আসামীদের আটক না করে তাদের সাথে অর্থ বাণিজ্যে চুক্তিতে আবদ্ধ হয়ে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। অপরদিকে সাধারন নিরিহ মানুষদের ওয়ারেন্টের আসামী বলে ধরে টাকার বিনিময়ে ছেড়ে দেওয়া হচ্ছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকা থেকে জানা যায় ভুরুলিয়ার সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ লিয়াকত আলীর নিকট থেকে ৪০ হাজার, সিরাজপুর সবুর মাস্টারের নিকট থেকে ২৫ হাজার, চালিতাঘাটা নজরুল ইসলামের নিকট থেকে ২০ হাজার, মহসিন রেজার নিকট থেকে ৮০ হাজার, ভুরলিয়া বিএনপির সভাপতি মতিন গাজীর নিকট থেকে ৫০ হাজার, নাগবাটির বাচ্চু গাজীর নিকট হতে ৩০ হাজার, তেঘড়িয়ার আবুল কাশেম জিহাদীর নিকট থেকে ২০ হাজার, সিরাজপুর আমিনুর রহমান মিন্টুর নিকট থেকে ২০ হাজার টাকা নিয়েছে। এছাড়া সাদারন ও নিরিহ মানুষদের ওয়ারেন্টের আসামী বলে ধরে ভয় দেখিয়ে টাকা নিয়ে ছেড়ে দিচ্ছে। এঘটনায় এলাকায় এসআই রোকন আতঙ্ক বিরাজ করছে। মানুষ বাড়ি থাকতে সাহস পাচ্ছে না।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন