কলারোয়া সীমান্তে পতাকা বৈঠক, শিশুসহ ৪ বাংলাদেশীকে হস্তান্তর


নভেম্বর ২৫ ২০১৮


কলারোয়া(সাতক্ষীরা)প্রতিনিধি : সাতক্ষীরার কলারোয়া সীমান্তে বর্ডার গার্ড বাংলেিদশ (বিজিবি) ও ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের মধ্যে পতাকা বৈঠকে নারী, শিশুসহ ৪ বাংলাদেশীকে হস্তান্তর করা হয়েছে। রবিবার (২৫ নভেম্বর) বিকাল সাড়ে ৩টার দিকে উপজেলার কাকডাঙ্গা সীমান্তের মেইন পিলার ১৩/৩ এসএর ৩ আরবি’র নিকট এ পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। হস্তান্তরকৃত বাংলাদেশীরা অবৈধ ভাবে ভারতে প্রবেশকালে তারালী বিএসএফ ক্যাম্পের সদস্যরা তাদেরকে আটক করে।
হস্তান্তরকৃতরা হলেন, সাতক্ষীরা সদর উপজেলার ছয়ঘরিয়া গ্রামের ইব্রাহিম গাজীর ছেলে আজগার আলী (৩০), তার স্ত্রী সুমি বিবি (২৩), একই গ্রামের আরশাদ আলীর স্ত্রী সালমা খাতুন (২৫) ও শিশু আরবিনা খাতুন।
সাতক্ষীরা ৩৩ বিজিবি ব্যাটেলিয়নের কলারোয়া কাকডাঙ্গা বিওপির ল্যান্স নায়েক হেলাল উদ্দীন জানান, গত ৩/৪ দিন আগে অবৈধ পথে ভারতে প্রবেশ করার পর তারালী এলাকায় থেকে টহলরত বিএসএফ সদস্যরা চার বাংলাদেশীকে আটক করে। এঘটনার পর আটক বাংলাদেশীদের ফেরত দেয়ার জন্য ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ সদস্যরা কলারোয়া কাকডাঙ্গা বিজিবি ক্যাম্পে পত্র মারফত অবহিত করে। তিনি বলেন, আটক বাংলাদেশীদের ফেরত নিতে রবিবার বিকালে কাকডাঙ্গা সীমান্তে পতাকা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে আটক চারজনকে বিএসএফ সদস্যরা তাদের কাছে হস্তান্তর করে। পরে বিকাল ৫ টার দিকে তাদেরকে কলারোয়া থানায় সোপার্দ করা হয়েছে।
কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ মারুফ আহম্মেদ জানান, অবৈধ ভাবে ভারতে প্রবেশের অভিযোগে বিজিবি বাদী হয়ে কলারোয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন