দেবহাটায় মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষন: শিক্ষক আটক


জুন ২০ ২০১৮

সখিপুর প্রতিনিধি: দেবহাটায় এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ করার ঘটনা ঘটেছে। ধর্ষিতার পিতার দায়ের করা মামলায় লম্পট শিক্ষক ফজর আলীকে আটক করেছে পুলিশ।

সে কালিগঞ্জ উপজেলার কাশেমপুর গ্রামের দবিরউদ্দীন খাঁনের ছেলে ও দেবহাটা উপজেলার হাদীপুর আহছানিয়া আলিম মাদ্রাসার আইসিটি শিক্ষক।

মামলার বাদি ছাত্রীর পিতা জানান, তিনি ও মাদ্রাসার আইসিটি শিক্ষক ফজর আলী একই সাথে মাদ্রাসায় শিক্ষকতা করের। সে সুবাদে লম্পট ফজর আলী আমার বাড়িতে আসা যাওয়া করতেন। সেই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে আমার এসএসসি পড়–য়া কন্যাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে প্রায় ২ বছর ধরে ধর্ষণ করে আসছে। গত ১০জুন রাতে তিনি জানতে পারি লম্পট ফজর আলী তার মেয়ে ধর্ষণ করেছে। তার স্ত্রী মমতাজ বেগম দেখতে পেয়ে চিৎকার করলে ফজর আলী পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে তিনি বাদি হয়ে দেবহাটা থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০১ এর ৯(১) ধারায় মামলা দায়ের করি। যার মামলা নং- ১২। এঘটনায় দেবহাটা থানা পুলিশ ধর্ষক ফজর আলীকে আটক করে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন