পাটকেলঘাটায় পল্লী বিদ্যুৎ এর সংযোগ দেওয়াকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় ধানদিয়া ইউনিয়নের এনায়েতপুর গ্রামের দু’কলেজ ছাত্রীকে মারপিট


জুন ৩ ২০১৮

পাটকেলঘাটা প্রতিনিধি: পাটকেলঘাটায় পল্লী বিদ্যুৎ এর সংযোগ দেওয়াকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় ধানদিয়া ইউনিয়নের এনায়েতপুর গ্রামের দু’কলেজ ছাত্রীকে মারপিট করে মারাতœক আহত করেছে। আহত মারুফা সুলতানা (২৩) ও বেবী সুলতানা (১৮) সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এঘটনায় ৪ জনের নাম উল্লেখসহ আরো ৫/৬জন কে অজ্ঞাত আসামী করে মামলা দায়ের করেছে ভুক্তভোগীর মা সাবিনা পারভিন (৫০)।
অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন থেকে বৈদ্যুতিক সংযোগ নিয়ে ধানদিয়া ইউনিয়নের এনায়েতপুর সানতলা গ্রামের সাহবাজ ফকিরের সাথে পার্শ্ববর্তি আব্দুর রহমান ফকির, আলম ফকির ও আনারুল ফকিরের বিরোধ চলে আসছিলো। এমতস্থায় গত ২৮/০৫/২০১৮ দুপুর ১টার দিকে পাটকেলঘাটাস্থ সাতক্ষীরা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির সদস্যরা নতুন বৈদুৎতিক সংযোগ লাগানোর যাতে সংযোগ না দিতে পারে সে সময় অতর্কিত ভাবে লাঠি, শাবল, দা, লোহার রড, কাঠ নিয়ে সাহবাজের বাড়ীতে আকবর ফকিরের পুত্র আাব্দুর রহমান ফকির (৪০), তার মেয়ে আয়েশা খাতুন (২১), শাহাজাহান আলী ফকিরের পুত্র আলম ফকির (২৪), তার স্ত্রী হালিমা বেগম(২১), মৃত নুর ইসলাম ফকিরে পুত্র আনারুল ফকির (৩৫) সন্ত্রাসী কায়দায় হামলায় চালিয়ে বাড়ীতে থাকা মারুফা সুলতানা (২৩) ও বেবী সুলতানা (১৮) পিটিয়ে আহত করে এসময় মারুফা সুলতানা মাথায় ধারালো দা দিয়ে কোপ মারলে সে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে। পরে স্থানীয়রা সন্ত্রাসীদের কবল থেকে তাদের দু’বোনকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। এ বিষয়ে পাটকেলঘাটা থানায় ৪জনের নাম উল্লেখ করে আরো ৬ জনকে অজ্ঞাতনামা করে ভুক্তভোগীর মা সাবিনা পারভিন বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন। মামলা নং-১০।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন