বাংলাদেশের আমের রাজ্য সাতক্ষীরা


মে ২০ ২০১৮

শহর প্রতিনিধি: কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর খামারবাড়ি ঢাকা মহাপরিচালক কৃষিবিদ মোহাম্মদ মহাসীন বলেন, ‘বাংলাদেশের আমের রাজ্য সাতক্ষীরা। দেশে ও বিদেশে চিংড়ির পাশাপাশি আমে যে সুনাম অর্জন করেছে এটা ধরে রাখতে হবে। সাতক্ষীরার আম, দেশ ও দেশের বাহিরের আমের চাইতে বেশি সুস্বাদু ও মিষ্টি। সাতক্ষীরার আম বিভিন্ন প্রজাতির হওয়ায় আন্তর্জাতিক বাজারে চাহিদা অনেক বেশি। সঠিক সময়ে এবং বালাই কীটনাশকমুক্ত আম উৎপাদন করতে হবে আম চাষীদের।’ গতকাল দেশীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে সরবরাহযোগ্য বালাইমুক্ত নিরাপদ আম উৎপাদন ও বিপণন শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর খামারবাড়ি ঢাকা মহাপরিচালক কৃষিবিদ মোহাম্মদ মহাসীন এ কথা বলেন। সদর উপজেলা মিলনায়তনে জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইফতেখার হোসেন।
অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক কৃষিবিদ কাজী আব্দুল মান্নান। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর খামারবাড়ি ঢাকা উদ্ভিদ সংগনিরোধ উইং, পরিচালক কৃষিবিদ ড. মো. আজহার আলী, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর খামারবাড়ি খুলনা অঞ্চলের অতিরিক্ত পরিচালক নিত্যরঞ্জন বিশ^াস, সাতক্ষীরা জেলা পুলিশ সুপার মো. সাজ্জাদুর রহমান, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর খামারবাড়ি ঢাকা কৃষিবিদ আনোয়ার হোসেন, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান মো. আসাদুজ্জামান বাবু, সলিডারিডাড এর কান্ট্রি ম্যানেজার সেলিম রেজা হাসান, উত্তণের পরিচালক শহিদুল ইসলাম প্রমুখ। এসময় উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কহিনুর ইসলাম, উপসহকারি কৃষি অফিসার রঘুজিৎ গুহ, আম রপ্তানীকারক মো. আবুল হোসেন, আম চাষী শিখা রাণী, শাহীন বিশ^াস প্রমুখ। কর্মশালায় প্রজেক্টরের মাধ্যমে দেশীয় ও আন্তর্জাতিক বাজারে সরবরাহযোগ্য বালাইমুক্ত নিরাপদ আম উৎপাদন ও বিপণন বিষয় উপাস্থাপন করেন সদর উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ মো. আমজাদ হোসেন। সমগ্র অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন কালিগজ্ঞ উপজেলা কৃষি অফিসার ফজলুল হক মনি।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন