পাঁচ হাজার টাকার জন্য কৃষকের মাজায় দড়ি ওঠে অথচ কোটি টাকার দুর্নীতি ও ঋণ খেলাপিদের নাম বলতে সাহস পান না অর্থমন্ত্রী


মে ১২ ২০১৮

শহর প্রতিনিধি: গণফোরামের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা মহাসীন মন্টু বলেন, বাংলাদেশ দুর্নীতিতে ছেয়ে গেছে। পাঁচ হাজার টাকার জন্য কৃষকের মাজায় রশি বেধে নিয়ে আসা হয়, কিন্তু হাজার হাজার কোটি টাকার দুর্নীতি ও ঋণ খেলাপিদের নাম বলতে সাহস পান না অর্থমন্ত্রী। এসবের বিচার হওয়া উচিত। তিনি বলেন, কোটা সংস্কার একটা যৌক্তিক দাবি। কিন্তু আমাদের এক প্রবীণ মন্ত্রী সংসদে আন্দোলনকারীদের রাজাকারের বাচ্চা বলে তরুণ সমাজকে মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষে ঠেলে দিলেন। এটা নিয়ে যত দ্রুত সম্ভব একটা সমাধান হওয়া উচিত।
সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের শহীদ স.ম আলাউদ্দিন মিলনায়তনে গণফোরাম সাতক্ষীরা জেলা শাখা আয়োজিত কর্মীসভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে মোহসীন হোসেন মন্টু আরও বলেন, সামরিক বাহিনীর হাতে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বিএনপি’র প্রতিষ্ঠিাতা মেজর জেনারেল জিয়াউর রহমানসহ অনেকেই হত্যা হয়েছে। দেশে বেশ কিছু সময়কাল ধরে সামরিক স্বৈরাচারী শাসকরা শাসন করেছে। সামরিক স্বৈরশাসকরা সংবিধানের মূল কাঠামো অসাম্প্রদায়িকতার রূপরেখা পরিবর্তণ করে ইসলামকে রাষ্ট্রধর্ম করেছে।
বর্তমানে গণতন্ত্রের নামে প্রহসন চলছে উল্লেখ করে মন্টু বলেন, ভারতের কারগিলে পাকিস্তানের সঙ্গে যখন কঠিন যুদ্ধ হয়েছে তখন সকল রাজনৈতিক দল তাদের ব্যক্তিগত ইগো ভুলে জাতীয় স্বার্থে সরকারের পাশে দাঁড়িয়েছে। তাই বাংলাদেশের গণতন্ত্র অক্ষুন্ন রাখতে স্বাধীনতা বিরোধী শক্তির বিরুদ্ধে মুক্তিযোদ্ধার চেতনায় বিশ্বাসী সকল রাজনৈতিক দলকে দলীয় সংকীর্ণতার বাইরে এসে জাতীয় ঐক্যমত গড়ে তোলার বিকল্প নেই।
কর্মী সম্মেলনে জেলা গণফোরামের সভাপতি প্রভাষক মামুনুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আলী নূর খান বাবুলের সঞ্চালনায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, গনফোরামের কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ন-সাধারণ সম্পাদক আ,ও,ম শফিকউল্লাহ, প্রশিক্ষণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম পথিক, যুব বিষয়ক সম্পাদক রওশন ইয়াজদানী, যুব গণফোরামের আহবায়ক কাজী হাবিব প্রমুখ।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন