কাশিমাড়ীতে বজ্রপাতে দুই জনের মৃত্যু ও আহত-২


মে ১০ ২০১৮

কাশিমাড়ী প্রতিনিধি: শ্যামনগর উপজেলার কাশিমাড়ীতে বজ্রপাতে দুই জনের মৃত্যু হয়েছে ও আহত হয়েছে দুই জন। কাশিমাড়ী গাংআটি গ্রামের আব্দুস সাত্তার মোড়ল এর ছোট ছেলে মোঃ আমিনুর রহমান মোড়ল (১৬) বৃহস্পতিবার দুপুরে বজ্রপাতে মৃত্যুবরণ করেন। বজ্রপাতে মৃত্যু আমিনুর এর ভাই আল আমিন জানান, আমিনুর রহমান খুব ভাল ছেলে ছিল। সে জয়নগর আমিনিয়া হামিদিয়া ফাজিল ডিগ্রি মাদরাসার সপ্তম শ্রেণীর ছাত্র ছিল। বৃহস্পতিবার দুপুরে গাংআটি জামে মসজিদে যোহরের নামাজ পড়ার পরে মসজিদের বারান্দায় বসে ছিল আমিনুর রহমান (১৬) ও আক্তারুল ইসলাম (১৭) এমন সময় বৃষ্টির কারনে তারা মসজিদের বারান্দায় অবস্থান করে অনুমানিক ২টার দিকে বজ্রপাতের আঘাতে আমিনুর রহমানের মৃত্যু হয় ও আক্তারুল ইসলাম গুরত্বর অসুস্থ্য হয়ে পড়ে।
অসুস্থ্য আক্তারুল শ্যামনগর সদর হাসপাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে। মাদরাসার ছাত্র আমিনুর রহমান এর অকাল মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়ানেমে এসেছে। শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে গাংআটি মসজিদের সংলগ্নে তার জানাযার নামাজ অনুষ্ঠিত হবে। অন্যদিকে বজ্রপাতের আঘাতে ঘোলা গ্রামের মৃত্যু আব্দুল মাজেদ সরদারের ছেলে মো. আশরাফ হোসেন এর মৃত্যু হয়েছে। সূত্রে জানা গেছে, আশরাফ হোসেন (২৫) ঘোলায় একটি ঘেরে কাজ করতে ছিল এমন সময় বৃষ্টি শুরু হলে সে বাড়িতে আসার জন্য রওনা হয়। দুপুর ১:৩৫ মিনিটের দিকে ঘেরের ভেড়িতে থাকা অবস্থায় বজ্রপাতের আঘাতে তার মৃত্যু হয়। বজ্রপাতের আঘাতে মৃত্যু আশরাফ হোসেনের অকাল মৃত্যুতে পরিবারসহ এলাকাবাসি শোকাহত। বজ্রপাতের আঘাতে মৃত্যু আশরাফ হোসেন রেখেগেছে মা, স্ত্রী ও তিন মাস বয়ষের একটি কন্যা সন্তান। বৃহস্পতিবার মাগরিবের নামাজ বাদে ঘোলা ঈদগাহ ময়দানে তার জানাযার নামাজ অনুষ্ঠিত হয়। নামাজ শেষে তাকে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। অপরদিকে বজ্রপাতের আঘাতে গুরত্বর অসুস্থ্য হয়ে শ্যামনগর সদর হাসপাতে চিকিৎসাধীন রয়েছে জয়নগর গ্রামের আব্দুর রহিম এর ছেলে মিজানুর রহমান(১৭)।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন