অবৈধ্যভাবে ড্রেন নির্মাণ করে পথ রুদ্ধ করার অভিযোগ


মে ৭ ২০১৮

শহর প্রতিনিধি: সদর উপজেলার পলাশপোল মধুমোল্লারডাঙ্গীর মো. আসাদুজ্জামান সোহাগের বিরুদ্ধে পৌরসভার জমিতে প্রাচীর নির্মাণ ও প্রতিবেশী মারুফ হোসেনের রেকর্ডীয় জমিতে ড্রেন তৈরি করে চলাচলের পথ রুদ্ধ করার অভিযোগ উঠেছে।
রোববার দুপুরে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করে এসব অভিযোগ করেন শহরের পলাশপোল মধুমোল্লারডাঙ্গীর মো. মারুফ হোসেন।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ১৯৮৪ সালে মধুমোল্লারডাঙ্গীর সরদার পাড়ায় পৌরসভার সড়কের পাশে ১১০৪২ দাগে জমি কিনে বাড়ি করে বসবাস করে আসছেন তিনি। কিন্তু তার প্রতিবেশী আসাদুজ্জামান সোহাগ বাড়ির পাশে খালি জায়গায় তার দরজার সামনে প্রাচীর নির্মাণ করেন। এর প্রতিবাদ জানিয়ে পৌরসভায় আবেদন করলে আসাদুজ্জামান পৌরসভার জায়গা দখল করবেন না বলে অঙ্গিকার করেন। অথচ এরপরও তিনি পৌরসভার খালি জায়গা দখল করে গাছ গাছালি লাগিয়েছেন। এ বিষয়ে পুনরায় পৌরসভাকে জানানো হলে সার্ভেয়ার মাপ জরিপ করে স্কেচ তৈরি করে পৌরসভার জমি থেকে সরে যাবার নির্দেশ দেয়। কিন্তু তারপরও আসাদুজ্জামান সোহাগ গত ১০ ফেব্রুয়ারি মারুফ হোসেনের বাড়ির সামনে ফের ড্রেন নির্মানের লক্ষ্যে খনন করেন। এ সময় তিনি বলেন পৌরসভার কথা মানিনা। এতে বাধা দেওয়ায় তিনি মারমুখী হয়ে ওঠেন। বিষয়টি সাতক্ষীরায় থানায় জানানো হলে এসআই হুমায়ুন কবির ১৩ ফেব্রুয়ারি গাছগাছালি অপসারন করে শান্তিপূর্ণভাবে বসবাসের নির্দেশ দেন সোহাগকে।
সংবাদ সম্মেলনে মারুফ হোসেন এসব বিষয় তুলে ধরে বলেন, এসব কিছুর তোয়াক্কা না করেই সোহাগ ৮/১০ জন নারী পুরুষ নিয়ে গত ৪ মে একই জায়গায় ড্রেন নির্মান করে তার যাতায়াতের পথ রুদ্ধ করেছেন। মারুফ হোসেন এর প্রতিবাদ জানিয়ে প্রতিকার দাবিতে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের সহযোগিতা কামনা করেন।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন