বৈষম্যে, ঘুষ ও দলবাজীর বিরুদ্ধে জাসদ সকল সময় আপোষহীন


এপ্রিল ২৩ ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: জাসদ কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যকরী সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এ্যডভোকেট রবিউল আলম বলেন, ‘শতভাগ মুক্তিযোদ্ধার নেতৃত্বে গড়ে ওঠা দল জাসদ সবসময় বৈষম্য, ঘুষ ও দলবাজীর বিরুদ্ধে। সুনিদৃষ্ট কর্মসূচির ভিত্তিতে মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারন করে জননেতা হাসানুল হক ইনুর পরিকল্পনায় গড়ে ওঠে ১৪দলীয় ঐক্যজোট।’
তিনি বলেন, ‘বিএনপি সুচতুরভাবে মিথ্যাকে সত্য প্রমাণিত করার চেষ্টা করছে। বিএনপির আমলে দেড় কোটি ভূয়া ভোটার করা হয়। জঙ্গীর সঙ্গী ও জঙ্গী উৎপাদনকারী বিএনপি ক্ষমতায় থাকাকালীন বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনাকে হত্যা করার জন্য আক্রমণ করা হয়।’
জাসদ নেতা রবিউল আরো বলেন, ‘প্রচলিত সমাজব্যাবস্থায় মানুষের মর্যাদা নিয়ে বেচে থাকা সম্ভব নয়। এখানে মানুষের শ্রমের মর্যাদা দেওয়া হয় না। এ সমাজে নারীর মর্যাদা দেওয়া হয়না। এখানে বৈষম্য আকাশচুম্বী। দেশ আজ মধ্য আয়ের দেশে পরিণত হলেও নিন্ম আয়ের মানুষেরা রয়েছে চরম বৈষম্যের মধ্যে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনার সাথে এ অবস্থা সংগতিপূর্ণ নয়। তাই জাসদ এ সমাজব্যাবস্থাকে পরিবর্তন করে সমাজতান্ত্রিক বাংলাদেশ নির্মাণের লড়াই করছে।’
তিনি আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সাতক্ষীরা-১ আসনের জাসদ মনোনীত প্রার্থী ওবায়দুস সুলতান বাবলুকে পরিচয় করিয়ে দেন।
সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন কলারোয় উপজেলা জাসদ সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মাদ আনোয়ার হোসেন। সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী রিয়াজ, কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সফি উদ্দীন মোল্যা, কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুর রহমান চুন্নু, কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সম্পাদক শেখ ওবায়দুস সুলতান বাবলু, জেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন লস্কর শেলি, জাতীয় কৃষক জোট কেন্দ্রীয় কমিটির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ আশেক-ই-এলাহী, জাতীয় নারী জোট সাতক্ষীরা জেলার সাধারণ সম্পাদক জান্নাতুল ফেরদৌস বিনা, তালা উপজেলা জাসদের সভাপতি বিশ্বাস আবুল কাশেম, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের যশোর জেলা শাখার সভাপতি তাজুল ইসলাম তাজু, সাতক্ষীরা জেলা সভাপতি অনুপ কুমার অনুপ ও তালা উপজেলার সভাপতি এস এম আব্দুল আলিম প্রমুখ। সমাবেশ পরিচালনা করেন কলারোয়া উপজেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক আব্দুর রাজ্জাক।
সমাবেশ শেষে অনুষ্ঠিত কাউন্সিলে বীরমুক্তিযোদ্ধা মো. আনোয়ার হোসেনকে সভাপতি ও অধ্যাপক আব্দুর রাজ্জাক কে সাধারণ সম্পাদক করে ৫১ সদস্য বিশিষ্ট কলারোয়া উপজেলা কমিটি গঠন করা হয়। সমাবেশের পূর্বে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি কলারোয়ার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। সমাবেশের শুরুতে জাতীয় সংগীতের মাধ্যমে জাতীয় পতাকা ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন যথাক্রমে সভার প্রধান অতিথি এ্যাডভোকেট রবিউল আলম ও বিশেষ অতিথি মুক্তিযোদ্ধা কাজী রিয়াজ।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন