লাবসা ইউপি চেয়ারম্যান কতৃক অর্ধকোটি টাকা আত্মসাৎ


এপ্রিল ৯ ২০১৮

নিজস্ব প্রতিবেদক: লাবসা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান কতৃক প্রকল্পের কাজ না করে অর্ধকোটি টাকা পকেটস্থ করার পরও কোন ব্যাবস্থা না হওয়ায় জনমনে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে বলে জানা গেছে।
জানা যায়, লাবসা ইউপি চেয়ারম্যান নাশকতা মামলার আসামি আব্দুল আলিম ও ইউপি সচিব আব্দুর রাজ্জাক ইউনিয়নের আওতাধীন বিনেরপোতা হাট ইজারা বাবদ ৩৭ লক্ষ ২৮ হাজার ৭২৩ টাকা এবং হাটবাজারের জন্য বরাদ্ধ হওয়ায় ১২ লক্ষ ১৫ হাজার ৮৮৮ টাকা পরিকল্পিতভাবে আত্মসাৎ করে নেয় বলে অভিযোগ ওঠে। এ অর্থ ইউনিয়ন পরিষদের আর্থিক বিধি বিধান অনুযায়ী ব্যয় করার কথা থাকলেও নিয়মের কোন তোয়াক্কা না করে বিভিন্ন ভূয়া প্রকল্প দখিয়ে, একই কাজ বার বার দেখিয়ে, ভূয়া রেজুলেশন করে গত ১৩ জুন ২৩২৪০৭৪ নং চেকের মাধ্যমে ৩৭ লক্ষ ২৮ হাজার ৭২৩ টাকা উত্তোলন করেন। এঘটনায় দুর্নীতিবাজ ইউপি চেয়ারম্যান আলিমের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবিতে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল, সমাবেশ ও জেলা প্রশাসকসহ উর্দ্ধতন মহলে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। কিন্তু আজ অবধী অজানা কারণে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে দৃশ্যমান কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি বলে জানা গেছে।
অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে গত ২৬ ফেব্রুয়ারি সাতক্ষীরা স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক আব্দুল লতিফ খান তদন্ত করার জন্য ইউনিয়ন পরিষদে যান এবং এ বিষয়ে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস প্রদান করেন।
ইউপি চেয়ারম্যানের লুটপাটের ঘটনায় প্যানেল চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া বাবু বাদি হয়ে সাতক্ষীরা সিনিয়র স্পেশাল জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। যার পিটিশন- ১/২০১৮, স্মারক নং- ২৩৭৭, তাং-১৮মার্চ২০১৮। উক্ত আদালত মামলাটির তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য দুর্নীতিদন দমন কমিশনকে নির্দেশ দেন।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন