কালিগঞ্জের তারালীতে কেরাম বোর্ডের আড়ালে চলছে রমরমা জুয়া


মার্চ ১৩ ২০১৮

তারালী প্রতিনিধি: কালিগঞ্জ উপজেলার তারালী ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি স্থানে কেরাম বোর্ডের আড়ালে চলছে জমজমাট জুয়ার আসর। তারালি ইউনিয়ন ব্যাপি জালের মত বিস্তার করে আছে এ অবৈধ্য জুয়া।

সরজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, তারালী ইউনিয়নের তারালী রবি টাওয়ার সংলগ্ন সেট বাজার, ইঞ্জিন ভ্যান গ্যারেজ মোড়, পশ্চিম তেঁতুলিয়া ঝাউতলা মোড়, তেঁতুলিয়া মাঝের পাড়া মোড়, বরেয়া হাটখোলা মোড়, তেঁতুলিয়া বাজার, তারালী ব্রীজ সংলগ্ন জাফরপুর মোড়ে মুদি এবং চায়ের দোকান গুলোতে সকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত দেদারছে চলছে এ জুয়া খেলা।

২৯/৩০ পয়েন্টে ৮/১০ টাকা গেমে খেলা চলাকালিন একদম তাস খেলার আদলে ১শ টাকা থেকে শুরু করে, হাজার টাকায়ও চলে এ জুয়া। এ খেলায় একদিকে যেমন কেউ কেউ হেরে গিয়ে নিঃস্ব হচ্ছে। তেমনি অন্যদিকে কেউ কেউ জিতে গিয়ে হাজার হাজার টাকা পকেটস্থ করছে। হার জিতের এ জূয়া খেলাটি বর্তমানে ইউনিয়ন ব্যাপী বেশ জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে।

মূলত কোন প্রকার বাধা নিষেধ ছাড়াই এ খেলাটি পরিচালনা করে যাচ্ছে চা এবং মুদি দোকানদার নামধারী কিছু অসাধু ব্যক্তিরা। বলাই বাহুল্য যে, স্কুল কলেজ ফাঁকি দিয়ে দিন দিন এ জুয়া খেলায় ঝুঁকে পড়ছে শিক্ষার্থীরা। এ খেলায় জড়িয়ে যুব সমাজ বিভিন্ন অপরাধমূলক কমকান্ডে জড়িয়ে পড়ছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে একাধিক অভিভাবকরা এ প্রতিনিধিকে বলেন, অতিদ্রুত কেরাম বোর্ড নামের জুয়া খেলাটি বন্ধ করা উচিত। অন্যথায় আমাদের সন্তানদের জীবন নষ্ট হয়ে যেতে পারে। একজন জন প্রতিনিধি হিসাবে এজুয়া খেলাটি বন্ধে কোন পদক্ষেপ নিয়েছেন কিনা জিজ্ঞাসা করা হলে ইউপি সদস্য কবির গাজী বলেন, আমার জানা নেই। তবে যারা খেলে তারা মূলত ৮/১০ টাকা গেমে খেলে এছাড়া কিছুই না। তবে যদি জুয়া খেলা হয় তাহলে আমি জুয়া বন্ধে পদক্ষেপ নেব।

৭ এবং ৮নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য যথাক্রমে বাবলু আক্তার এবং শহিদুল ইসলাম বলেন, যদি কেরাম বোর্ড খেলার আড়ালে জুয়া খেলা চলে তাহলে অবশ্যই এটি বন্ধ করা হবে।

কেরাম বোর্ডের আড়ালে জুয়ার ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান এনামুল হোসেন ছোট বলেন, বিষয়টি আমার জানা ছিলো না। তবে খুব শীঘ্রই এ জুয়া বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা গোলাম মাঈনউদ্দীন হাসান বলেন, বিষয়টি আমি গুরুত্বের সাথে দেখছি।

এমতাবস্থায় অতিদ্রুত কেরাম বোর্ডের আড়ালে চলমান এ জুয়া বন্ধের পাশাপাশি জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য উদ্ধর্তন কর্তৃপক্ষের আশুহস্তক্ষেপ করেছেন তারালী ইউনিয়নবাসী।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন