খুলনায় যুবদলের বিক্ষোভ সমাবেশ


জানুয়ারি ২৯ ২০১৭

স্টাফ রিপোর্টার ; আগামীর বাংলাদেশের নেতৃত্ব তারেক রহমানের হাতে দাবি করে খুলনায় যুবদলের সমাবেশে নেতৃবৃন্দ বলেছেন, মিথ্যা মামলায় কারাগারে পাঠিয়ে দেশে আর একটি এক দলীয় নির্বাচন আয়োজনের চক্রান্ত চলছে। রাজনৈতিক দলগুলোর সাথে সংলাপের নাটক মঞ্চস্থ করার পর রাষ্ট্রপতি আওয়ামী লীগের প্রেসক্রিপশন অনুযায়ী একটি বশংবদ সার্চ কমিটি গঠন করেছেন। যারা রকিব মার্কা আর একটি নির্বাচন কমিশন গঠনের দিকে অগ্রসর হচ্ছে। সরকার গণতন্ত্রের কবর রচনা করেছে, মত প্রকাশের স্বাধীনতা কেড়ে নিয়েছে। বিএনপিসহ সকল দলের অংশগ্রহন ছাড়া আর কোন জাতীয় নির্বাচনের ষড়যন্ত্র করলে তার জন্য সরকারকে চরম মাশুল দিতে হবে বলে বক্তারা হুশিয়ারী উচ্চারণ করেন।

বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে রবিবার খুলনায় যুবদল আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তারা এসব কথা বলেন। মহানগর শাখার উদ্যোগে বিকেল ৪টায় কে ডি ঘোষ রোডস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে অনুষ্ঠিত সমাবেশে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও খুলনা মহানগর সভাপতি সাবেক এমপি নজরুল ইসলাম মঞ্জু। মহানগর যুবদল সভাপতি শফিকুল আলম তুহিনের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন কেসিসির মেয়র মনিরুজ্জামান মনি ও মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ফখরুল আলম। সমাবেশে বক্তব্য রাখেন যুবদল নেতা একরামুল কবির মিল্টন, স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা একরামুল হক হেলাল, আতিকুর রহমান তিতাস, মেহেদী মাসুদ সেন্টু, শফিকুল ইসলাম হোসেন, কাজী নেহিবুল হাসান, জাহিদুর রহমান রিপন, রফিকুল হাসান, জাহিদ হোসেন, মাহবুব হাসান পিয়ারু, মোল্লা সোহরাব হোসেন, সাব্বির হোসেন, দিদারুল ইসলাম লাভলু, হাফিজুর রহমান পিন্টু, ইফতেখার হোসেন, মেহেদী হাসান সোহাগ, সাইফুল ইসলাম সান্টু, ইফতেখান বিশ্বাস, সোহেল মোল্লা, জাকির হোসেন, জাহাঙ্গীর হোসেন, জাকির ইকবাল বাপ্পী, সাইফুল্লাহ আল মামুন মনা, তারিকুল ইসলাম বাকার, ফারুক খান, মনিরুজ্জামান মনি, এস এম জসীমউদ্দিন, আলতাফ হোসেন, গোলামুন নবী ডালু, জাকির মুন্সি, শামীম আজাদ খান মিলু, নাজমুল হাসান নাসিম, হারুন অর রশিদ মাসুম প্রমুখ।

 

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন