জনগণের প্রত্যাশা পূরণে রাষ্ট্রপতি ব্যর্থ: মির্জা ফখরুল


জানুয়ারি ২৭ ২০১৭

এসবিনিউজ ডেস্ক : নতুন নির্বাচন কমিশন (ইসি) গঠনে গঠিত সার্চ বা অনুসন্ধান কমিটির সদস্যদের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর মন্তব্য করেছেন, রাষ্ট্রপতি জনগণের প্রত্যাশা পূরণে ব্যর্থ হয়েছেন।

শুক্রবার বেলা পৌনে ১১টায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে সার্চ কমিটি নিয়ে আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে এসব কথা বলেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। এসময় তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশের গণতন্ত্রকামী জনগণ প্রধান নির্বাচন কমিশনার নির্বাচন কমিশনারদের নাম প্রস্তাব করার জন্য গঠিত সার্চ কমিটি যথার্থই নির্দলীয় নিরপেক্ষ এবং কোনভাবেই বিতর্কিত নন এমন ব্যক্তিদের দ্বারা গঠিত হবে, এমন যে স্বাভাবিক ন্যায্য প্রত্যাশা করেছিল, ঘোষিত সার্চ কমিটি জনগণের প্রত্যাশা পূরণে পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে।

তিন অভিযোগ করেন, এই কমিটিতে ক্ষমতাসীন সরকারের ইচ্ছা পূরণে সহযোগিতা করে পুরস্কৃত এবং আওয়ামী পরিবারের বিশ্বস্ত সদসদের অন্তর্ভুক্তি সার্চ কমিটিকে শুধু বিতর্কিতই করেনি এর মাধ্যমে জনমতকে অগ্রাহ্য করার আরেকটি অগণতান্ত্রিক দৃষ্টান্ত স্থাপন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘এমন ব্যক্তিদের নিয়ে সার্চ কমিটি গঠন করা হয়েছে, যাদের নিরপেক্ষ বিবেচনা করার কোনো অবকাশ নেই। আমরা প্রার্থীহীন, ভোটারহীন নির্বাচন প্রহসনের মাধ্যমে ক্ষমতাসীন সরকারের এই স্বৈরাচারী আচরণের তীব্র নিন্দা প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

তিনি বলেন, ‘এই সার্চ কমিটি কি ধরনের নির্বাচন কমিশন গঠন করবে তা আমরা এখনই বুঝতে পারছি।  সুতরাং জাতিকে আবার আরেকটি অনিশ্চয়তা, অস্থিতিশীলতার দিকে ঠেলে দেয়া হলো। আমাদের দুর্ভাগ্য আজ পর্যন্ত এই সরকার আশার পরে একবারের জন্যও এই সংকট থেকে উত্তরণে সরকারের দিক থেকে কোনো উদ্যোগ দেখলাম না। অর্থাৎ এটা বলতে দ্বিধা নেই, সরকার চায় এই ধরনের পরিস্থিতি বিরাজ করুক। অস্থিতিশীলতাই থাকুক। পানি ঘোলাটে হতে থাকুক। আর ঘোলা পানিতে তারা চমৎকার করে মাছ শিকার করবেন। অর্থাৎ ক্ষমতায় যাবেন আর দখল করে থাকবেন।

অপছন্দের এই সার্চ কমিটি বিএনপি প্রত্যাখ্যান করবে কিনা এমন এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেনপ্রত্যাখ্যান করা না করা বিষয় নয়। নির্বাচন কমিশন গঠনের পর বিষয়ে প্রতিক্রিয়া জানানো হবে।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যান্যদের মধ্যে দলটির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, আমির খসরু মাহমুদ চৌধুরী, ভাইস চেয়ারম্যান ডা. জেড এম জাহিদ হোসেন, নিতাই রায় চৌধুরী, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবীর রিজভী, সহসাংঠনিক সম্পাদক আবদুস সালাম আজাদ, সহপ্রচার সম্পাদক আসাদুল করিম শাহিন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

 

 

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন