শোভাযাত্রা করে পরিষদে গেলেন সখিপুর ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম


জানুয়ারি ১৪ ২০২২

AttachmentsThu, Jan 13, 6:32 PM (17 hours ago)

এস এম নাসির উদ্দীণ

দেবহাটা প্রতিনিধি: শপথ গ্রহণ পরবর্তী রীতিমতো শোভাযাত্রা করে দলবদ্ধ কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে প্রায় এক কিলোমিটার পায়ে হেঁটে ইউনিয়ন পরিষদে গেলেন সখিপুর ইউপির নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম।
বৃহষ্পতিবার বেলা ১১টার দিকে উত্তর সখিপুরের বাসভবন থেকে পায়ে হেঁটে ইউনিয়ন পরিষদে যান তিনি। এরআগে বুধবার সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আনুষ্ঠানিকভাবে শপথ গ্রহণ করেন সাইফুল ইসলামসহ উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়ন পরিষদের নব নির্বাচিত চেয়ারম্যানগণ।
প্রথম কর্মদিবসকে ঘিরে সখিপুর ইউনিয়ন পরিষদ কমপ্লেক্স ভবনকে নতুন সাজে সাজিয়েছিলেন তার অনুসারীরা। পরিষদ অভিমুখে পৌঁছাতেই কর্ম-সমর্থকদের ফুলেল শুভেচ্ছায় সিক্ত হন সাইফুল ইসলাম। এসময় ইউনিয়ন পরিষদের সচিব, গ্রাম পুলিশ, উদ্যোক্তা ও সকল ইউপি সদস্যরা তাকে মিষ্টিমুখ করিয়ে বরণ করে নেন। সবশেষে কর্মী-সমর্থকদের নিয়ে কেঁক কেটে চেয়ারম্যানের চেয়ারে বসেন সাইফুল ইসলাম।

দেবহাটা প্রেসক্লাব সভাপতির মায়ের দাফন সম্পন্ন

দেবহাটা প্রতিনিধি: দেবহাটা প্রেসক্লাবের সভাপতি আব্দুর রব লিটুর মাতা মরহুমা রোকেয়া খাতুনের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। বৃহষ্পতিবার বাদজোহর উপজেলার সখিপুর ইউনিয়নের মাঘরী জামে মসজিদে জানাযা নামাজ শেষে পারিবারিক কবরস্থানে মরহুমার দাফন সম্পন্ন হয়। জানাযা নামাজে ভাইস চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান সবুজ, দেবহাটা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদুল হাসান শাওন, সখিপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হান্নানসহ বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ এবং এলাকার সকল শ্রেণি পেশার মানুষ স্বতষ্ফূর্তভাবে অংশগ্রহন করেন। এসময় মরহুমা রোকেয়া খাতুনের দুই পুত্র প্রেসক্লাব সভাপতি আব্দুর রব লিটু ও এনজিও কর্মী শফিউল মিঠুসহ অন্যান্য স্বজনরা মরহুমার রুহের মাগফেরাত কামনায় সকলের কাছে দোয়া চান। রোববার দুপুরে শোকসন্তপ্ত পরিবারের পক্ষ থেকে মরহুমার চেহলাম ও দোয়া অনুষ্ঠিত হবে।
উল্লেখ্য, বুধবার বিকেল ৪টায় উপজেলার মাঘরীর বাসভবনে মৃত্যুবরণ করেন প্রেসক্লাব সভাপতি আব্দুর রব লিটুর মাতা রোকেয়া খাতুন। তিনি মাঘরী গ্রামের মরহুম আবুল কালাম মন্ডলের স্ত্রী ও মাঘরী মহিলা আহছানিয়া মিশনের সদস্য ছিলেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭২ বছর।

দেবহাটায় করোনা’র টিকা পেলেন প্রায় ৮ হাজার শিক্ষার্থী

দেবহাটা প্রতিনিধি: গণটিকা কার্যক্রমের আওতায় মহামারী করোনা ভাইরাসের তৃতীয় ঢেউ ওমিক্রন সংক্রমন প্রতিরোধে ফাইজারের করোনা ভ্যাকসিন দেয়া হয়েছে দেবহাটা উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় ৮ হাজার শিক্ষার্থীকে। এসকল শিক্ষার্থীদের বেশিরভাগই ১২ থেকে ১৮ বছর বা তদোর্দ্ধ বয়সের। মঙ্গলবার, বুধবার ও সর্বশেষ বৃহষ্পতিবার ৭ হাজার ৭শ শিক্ষার্থী ভ্যাকসিন নিয়েছেন বলে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডা. আব্দুল লতিফ। উপজেলার সরকারি খানবাহাদুর আহছানউল্লা কলেজসহ কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে টিকাকেন্দ্র স্থাপন করে তিনটি কলেজসহ প্রত্যেকটি মাধ্যমিক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অধ্যায়ণরত শিক্ষার্থীদের ভ্যাকসিন দেয়া হচ্ছে। বৃহষ্পতিবার বিকাল পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের লাইনে দাড়িয়ে টিকা নিতে দেখা গেছে। সরকারি কেবিএ কলেজসহ অন্যান্য কেন্দ্র গুলোতে টিকা নিতে আসা শিক্ষার্থীদের চাপ সামলাতে প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষের পাশাপাশি নিয়োজিত রয়েছেন আনসার সদস্যরা। টিকা কার্যক্রম সুষ্ঠভাবে সম্পন্ন করতে স্ব-স্ব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কর্তৃপক্ষের সাথে কাধে কাধ মিলিয়ে কাজ করছেন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরাও। এছাড়া প্রতিনিয়ত পরিদর্শনসহ সার্বিক পরিস্থিতি মনিটরিং করছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকী।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন