ভারতের নতুন নিয়মে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে বাংলাদেশি পাসপোর্ট যাত্রীদের


ডিসেম্বর ১১ ২০২১

শার্শা উপজেলা :

বাংলাদেশি পাসপোর্ট যাত্রীরা আকাশ পথের ভিসা নিয়ে স্থলপথে ভারতে প্রবেশ করতে পারতেন। তবে হঠাৎ করে ভারতীয় ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ আকাশ পথের ভিসায় স্থলপথে ভারতে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে। এতে চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে বাংলাদেশি পাসপোর্ট যাত্রীদের। 

বৃহস্পতিবার (৯ ডিসেম্বর) বিকেল থেকে ভারতের পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন বেনাপোল ইমিগ্রেশনকে বিমান পথের ভিসার যাত্রীদেরকে স্থলপথে না পাঠাতে নির্দেশনা দিয়েছে।এদিকে হঠাৎ করে ভারতীয় ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষের এমন সিদ্ধান্তে প্রায় শতাধিক বাংলাদেশি পাসপোর্ট যাত্রীকে দেশে ফিরে আসতে হয়েছে। ফেরত আসা এসব বাংলাদেশি পাসপোর্ট যাত্রী চিকিৎসা, ব্যবসা ও শিক্ষা ভিসায় ভারতে যাচ্ছিলেন। 

ভারতে যেতে না পারা পাসপোর্ট যাত্রী আশরাফূল আলম আসাদ জানান, চিকিৎসা ভিসায় তিনি ভারতে যাচ্ছিলেন। কিন্তু তার পাসপোর্টের ভিসায় আকাশ পথ উল্লেখ থাকায় ভারতীয় ইমিগ্রেশন তাকে দেশে ফেরত পাঠিয়েছে। তবে তিনি ভিসার জন্য স্থলপথ উল্লেখ করে বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতীয় হাইকমিশনে আবেদন করেছিলেন। কিন্তু ভারতীয় হাইকমিশন তাদেরকে স্থলপথের ভিসা না দিয়ে আকাশ পথের ভিসা দিয়েছে। এখন নিরুপায় হয়ে বাড়িতে ফিরে যাচ্ছেন। 

বেনাপোল ইমিগ্রেশনের পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাজু আহমেদ জানান, আকাশ পথের ভিসার যাত্রীদেরকে মানবিক কারণে স্থলপথে ভারতে ঢুকতে দিচ্ছিল পেট্রাপোল ইমিগ্রেশন পুলিশ। কিন্তুু তারা এখন থেকে এমন যাত্রীদের স্থলপথে না পাঠাতে অনুরোধ জানিয়েছেন। 

বেনাপোল ইমিগ্রেশনের স্বাস্থ্য বিভাগের মেডিকেল অফিসার  আসাদুজ্জামান জানান, বর্তমানে মেডিকেল, বিজনেস ও শিক্ষা ভিসায় যাত্রীরা ভারত যাচ্ছেন। ভারত থেকে ফিরতে ৭২ ঘণ্টার  মধ্যে পরীক্ষা করা করোনার নেগেটিভ সনদ লাগছে। তবে যাদের করোনার ডাবল ডোজ টিকা গ্রহণ করা নেই তাদের বাড়িতে ফিরে ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। এছাড়া যাদের শরীরে করোনা উপসর্গ আছে তাদের র‌্যাপিড এন্টিজেন পরীক্ষা করা হচ্ছে। গত মঙ্গলবার থেকে এ পর্যন্ত সন্দেহভাজন ৮ জনের শরীরের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। তবে তাদের সবাই করোনা নেগেটিভ।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন