সাবেক ক্রিকেটার শিবলুর পাশে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী


সেপ্টেম্বর ১৩ ২০২১

মশাল ডেস্ক: বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক খেলোয়াড় শেখ রবিউল ইসলাম শিবলু দীর্ঘদিন যাবৎ নাক ও নাভীর পীড়াসহ নানা শারীরিক জটিলতায় ভুগছেন। এছাড়া তার বৃদ্ধ মাতাও অসুস্থ্য। এ অবস্থায় সাবেক এ ক্রিকেটারের পাশে দাঁড়ালেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল। বঙ্গবন্ধু ক্রীড়াসেবী কল্যাণ ফাউন্ডেশন থেকে শিবলুকে দুই লাখ টাকার আর্থিক অনুদান দেওয়া হয়েছে।
সাতক্ষীরার কৃতিসন্তান সাবেক ক্রিকেটার রবিউল ইসলাম শিবলু ২০১০ সাল থেকে ২০১৪ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশে জাতীয় ক্রিকেট দলের নিয়মিত খেলোয়াড় ছিলেন। জাতীয় দলের হয়ে ৯টি টেস্ট, ৩টি একদিনের এবং একটি টি-টৌয়েন্টি ম্যাচ খেলেছেন তিনি। জিম্বাবুয়ের সফরের টেস্ট সিরিজের ১৫টি উইকেট শিকার করে ম্যান অব দ্য সিরিজ নির্বাচিত হয়েছিলেন। যা দেশের বাইরে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশের ক্ষেত্রে একটি অনন্য রেকর্ড।
চেক প্রদানকালে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, আমরা সবসময় আমাদের খেলোয়াড়দের যেকোন দূরাবস্থায় পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করি। ভবিষ্যতেও আমাদের আন্তরিক এ প্রচেষ্টা ও সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। সহায়তার চেক পেয়ে ক্রিকেটার রবিউল ইসলাম শিবলু যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।
জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান দুস্থ অস্বচ্চল ও অসহায় ক্রীড়াসেবী এবং তাদের পরিবারের সহযোগিতার জন্য ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধু ক্রীড়াসেবী কল্যাণ ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা ক্রীড়াপ্রেমী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আন্তরিকতা ও সার্বিক পৃষ্ঠপোষকতায় ফাউন্ডেশনটি ইতিমধ্যে সিডমানি পৌঁছেছে ২৭ কোটি ৮৫ লক্ষ টাকায়।
২০০৯-১০ থেকে ২০২০-২১ অর্থবছর পর্যন্ত ফাউন্ডেশন থেকে ৬ হাজার ৬১৯ জন দুস্থ, আহত ও অসমর্থ ক্রীড়াসেবী এবং তাদের পরিবারের জন্য ১১ কোটি ৯২ লাখ ১৫ হাজার টাকা প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া করোনা মহামারিকালে অস্বচ্ছল ক্রীড়াবিদকে আর্থিক অনুদান প্রদান করা হয়। ফাউন্ডেশন থেকে ২০২০-২১ অর্থবছর থেকে মাসিক ক্রীড়া ভাতাও চালু করা হয়েছে।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন