“নন্দিত চলচ্চিত্র নির্মাতা তারেক মাসুদ ও মিশুক মুনীরের দশম প্রয়াণ দিবস আজ”


আগস্ট ১২ ২০২১

একজন ঋত্বিক ঘটকের মতো আমাদেরও একজন তারেক মাসুদ ছিলেন, যাকে বাংলা চলচ্চিত্রের অন্যতম নক্ষত্র হিসেবে ধরা যায়। আমাদের চলচ্চিত্র শিল্পের যখন মৃতপ্রায় দশা, চলচ্চিত্র শিল্প যখন রীতিমতো অন্ধকারে নিমজ্জিত; তখন এই স্বপ্নের ফেরিওয়ালা আন্তর্জাতিক মানের চলচ্চিত্র নির্মাণে অক্লান্তভাবে কাজ করেছেন। তিনি চেয়েছিলেন আবাল বৃদ্ধা বণিতা সকলের মাঝে মুক্তির আলো ছড়িয়ে দিতে। তাইতো জীবনের শেষ দিন অবধি চলচ্চিত্রের জন্য কাজ করে গেছেন সেলুলয়েডের এই কবি, আমাদের তারেক মাসুদ। ২০১১ সালের ১৩ আগস্ট কাগজের ফুল নামক চলচ্চিত্রের লোকেশন নির্বাচন শেষে ঢাকা ফেরার পথে মানিকগঞ্জে দুপুর ১২টা ২৫ মিনিটে সড়ক দুর্ঘটনায় তারেক মাসুদ, মিশুক মুনীরসহ পাঁচজন ঘটনাস্থলেই মারা যান। মারাত্মকভাবে আহত হন তারেক মাসুদের স্ত্রী ক্যাথরিন মাসুদসহ চারজন। নির্মাতা হিসেবে তারেক মাসুদ এ দেশের চলচ্চিত্রকে বিশ্বদরবারে পরিচিত করিয়েছেন। তারেক মাসুদ আন্তর্জাতিকভাবে প্রশংসিত প্রামাণ্য চলচ্চিত্র ‘মুক্তি গানে’র পরিচালক। তার পরিচালিত ‘আদম সুরত’, ‘মুক্তির গান’, ‘মাটির ময়না’, ‘রানওয়ে’, ‘অন্তর্যাত্রা’ ছবিগুলো সর্বমহলে প্রশংসা পেয়েছে। এমনকি কান চলচ্চিত্র উৎসব থেকে বিশেষ সমালোচক পুরস্কারও জয় করেছেন তারেক মাসুদ। এ নির্মাতার ‘মুক্তির গান’, ‘মুক্তির কথা’ কিংবা ‘মাটির ময়না’ স্বাধীনতা যুদ্ধের এক প্রামাণ্য দলিল। আশফাক মুনীর গণমাধ্যম জগতে মিশুক মুনীর নামেই বেশী পরিচিত। তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের সাবেক শিক্ষক। মিশুক মুনীর মূলত পরিচিত ছিলেন একজন দক্ষ ক্যামেরাপার্সন হিসেবে। আশফাক মুনীর বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় শহীদ বুদ্ধিজীবী ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক মুনীর চৌধুরীর সন্তান। কে জানতো ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলার এক সাধারণ মাদ্রাসা ছাত্র মাওলানা তারেক মাসুদ ইউ টার্ণে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইতিহাসে মাস্টার্স করবে! এবং কালক্রমে বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের বরপুত্র হয়ে উঠে উঠবে! তারেক মাসুদ তার সমগ্র জীবনে যা যা দেখেছেন, যে যে অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হয়েছেন; সেগুলিকেই তিনি পরবর্তী সময়ে চলচ্চিত্রের মাধ্যমে ফুটিয়ে তুলেছেন। তিনি তার শিল্পকর্মের মধ্যদিয়ে তার সময়কার সময়টিকে ধরতে চেয়েছেন। চিত্রায়িত করেছেন পেছনে ফেলে আসা সময়কেও। তার সময়কার বর্তমান এবং আবহমান বাংলার ইতিহাসকে তিনি ছুঁতে চেয়েছিলেন তার সৃষ্টিকর্মের মধ্যদিয়ে। বাংলাদেশের অন্যতম শ্রেষ্ঠ সাংবাদিক, সম্প্রচার কিংবদন্তি, টেলিভিশন সাংবাদিকতার পথিকৃৎ ও বিশিষ্ট চিত্রগ্রাহক মিশুক মুনীর এবং কিংবদন্তি চলচ্চিত্রকার তারেক মাসুদ এর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানাই। © হারুন-অর-রশীদ। (Source – ‘তারেক মাসুদ: জীবন ও স্বপ্ন’- সম্পাদক- ক্যাথরিন মাসুদ (জুন-২০১২), mzamin, BBC, barta24)

Harun Or Rashid 

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন