বরগুনার প্রবীন সাংবাদিক ও জাসদ নেতা আব্দুল আলীম হিমু করোনায় চলে গেলেন। জাসদের শোক


সেপ্টেম্বর ১০ ২০২০


জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল-জাসদের সভাপতি হাসানুল হক ইনু এমপি ও সাধারণ সম্পাদক শিরীন আখতার এমপি এক শোকবার্তায় করোনায় বরগুনার প্রবীন সাংবাদিক ও জাসদ নেতা আবদুল আলিম হিমুর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবার-স্বজন -সহযোদ্ধাদের প্রতি আন্তরিক সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন।
তারা বরগুনার প্রয়াত জাসদ নেতা আবদুল আলিম হিমুর প্রতি গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, পারিবারিকভাবেই তিনি রাজনৈতিক পরিবারে জন্ম নিয়েছিলেন। তার পিতা আব্দুল কাদের মিয়া ১৯৩৭, ১৯৫৪ সালে এমএলএ নির্বাচিত হয়েছিলেন। আবদুল আলিম হিমু ছাত্রলীগের নেতা হিসাবে বরগুনাসহ দক্ষিনাঞ্চলে ৬০দশকে বাঙালি জাতীয়তাবাদী সংগ্রাম-স্বাধীনতা সংগ্রাম -মুক্তিযুদ্ধে সাহসী ভুমিকা রাখেন। তিনি বরগুনায় জাসদ প্রতিষ্ঠাসহ জাসদ বরগুনা জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক, সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। তিনি জীবনের শেষদিন পর্যন্ত বরগুনা জেলা জাসদের সভাপতি হিসাবে দায়িত্বে ছিলেন।
তিনি রাজনীতির পাশাপাশি সাংবাদিকতাকে পেশা হিসাবে গ্রহণ করেছিলেন। তিনি ১৯৭২ সালে দৈনিক গণকন্ঠ দিয়ে সাংবাদিকতা শুরু করেন।তিনি দৈনিক ইত্তেফাকের বরগুনা জেলা প্রতিনিধি ছিলেন। এছাড়াও তিনি স্থানীয় দোনিক জাতীয় সাপ্তাহিক বরগুনাকণ্ঠ ও দৈনিক আজকের কণ্ঠের সম্পাদক ও প্রকাশক ছিলেন। তিনি তার রাজনৈতিক বিশ্বাস ও সাংবাদিকতাকে কখনই মিশিয়ে ফেলেননি।
জাসদ নেতৃদ্বয় বলেন, আবদুল আলিম হিমুর মৃত্যতে দক্ষিনাঞ্চলে জাসদ ও সাংবাদিকতা জগতের অপূরনীয় ক্ষতি হলো।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন