বিজিবি’র উপস্থিতি টের পেয়ে ভোঁ দৌড় সাতক্ষীরা সীমান্তে খাটাল মালিক মন্টুর গোয়ালঘর থেকে দু’টি ভারতীয় চোরাই গরু উদ্ধার


মার্চ ২৫ ২০১৯


অবৈধপথে নিয়ে আসা অন্যের মালিকানাধীন দু’টি ভারতীয় গরু উদ্ধার করেছে বিজিবি। রোববার রাত ৮টার দিকে সাতক্ষীরার সীমান্তবর্তী পদ্মশাঁখরা গ্রামের সামছুর রহমানের ছেলে খাটাল মালিক মন্টু সরদারের গোয়ালঘর থেকে এ গরু উদ্ধার করা হয়।
সরেজমিনে রোববার দুপুরে পদ্মশাঁখরা গ্রামে গেলে কোহিনুর ক্লাবের পার্শ্ববর্তী বাসিন্দা রজব আলী, সালেহা খাতুন, সাহেব আলীসহ কয়েকজন জানান, দেবহাটা উপজেলার কুলিয়া গ্রামের গরু ব্যবসায়ি বাবুর আলী ও আব্দুস সালাম চার দিন আগে সাতটি ভারতীয় গরু হাড়দ্দহ এক নং ঘাট দিয়ে এলাকায় নিয়ে আসে। বিজিবি খবর পেয়ে ধাওয়া করায় দু’টি গরু ভেড়িবাঁধের উপর রেখে তারা পাঁচটি গরু নিয়ে পালিয়ে যায়। বাকী দু’টি খাটাল মালিক মন্টু সরদার, লম্বা খোকন ও আমিন মাষ্টার কৌশলে অন্যত্র আটকে রাখে। ২৩ মার্চ মন্টু সরদার ওই গরু বাড়ির গোয়ালঘরে নিজের বকনা গরুর সঙ্গে রেখে দিয়ে তালা দরজায় তালা মেরে রাখে। বিষয়টি তারা জানতে পেরে ভোমরা বিজিবি ক্যাম্পে খবর দেন। বিজিবি’র উপস্থিতি টের পেয়ে মন্টু ভোঁ দৌড় দিয়ে পালিয়ে যায়। রোববার রাত আটটার দিকে ভোমরার বিজিবি ক্যাম্পের সুবেদার মজিবুর রহমানের নেতৃত্বে বিজিবি সদস্যরা গোয়ালঘরের তালা ভেঙে ওই গরু উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত গরুর দাম প্রায় দু’ লাখ টাকা।
খাটাল মালিক মন্টু সরদার সোমবার বিকাল চারটায় মোবাইল ফোনে সাংবাদিকদের জানান, ভারতীয় ব্যবসায়িদের কথামত হারানো দু’ গরুর সন্ধানদাতাদের ৩০ হাজার টাকা দেওয়ার শর্তে রোববার ভোটগ্রহণ চলাকালিন তার গোয়ালে রাখা হয়। বিজিবি খবর পেয়ে ওই গরু নিয়ে যায়। সে সময় তিনি শাখরা বাজারে ছিলেন।
ভোমরা বিজিবি ক্যাম্পের সুবেদার মজিবুর রহমান সোমবার দুপুর আড়াইটায় সাংবাদিকদের বলেন, উদ্ধারকৃত ভারতীয় গরু জব্দ তালিকা করে ৩৩ ব্যাটালিয়ন হেডকোয়ার্টারে পাঠানো হয়েছে।
বিজিবি’র ৩৩ ব্যাটালয়নের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা মিরাজুল ইসলাম জানান, সোমবার গরু দু’টি নিলামের জন্য কাস্টমস এ জমা দেওয়া হয়েছে।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন