শিক্ষকের বিরুদ্ধে অপপ্রচারের সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি


মে ১০ ২০১৮

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি: পাটকেলঘাটা এলাকার কাশিনাথ সাহার ছেলে মিহির সাহার মাদক ও সুদের ব্যবসার প্রতিবাদ করায় একজন শিক্ষক মোঃ ফারুক হোসেনের নামে সাম্প্রদায়িক উস্কানি দিয়ে মিথ্যে ও ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশের অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার বিকালে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এই অভিযোগ করেন পাটকেলঘাটা থানার ধানদিয়া গ্রামের মৃত কওছার আলী দফাদারের ছেলে মোঃ আব্দুর রাজ্জাক এই অভিযোগ করেন।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, পাটকেলঘাটা থানার ধানদিয়া গ্রামের মৃত আব্দুল গফুর মাষ্টারের ছেলে মোঃ ফারুক হোসেন একজন আদর্শ স্কুল শিক্ষক। শিক্ষাকতার পাশাপাশি এলাকায় তিনি একজন সমাজসেবক হিসাবে বিশেষ পরিচিত। অপরদিকে একই এলাকার কাশিনাথ সাহা একজন সুদখোর হিসাবে পরিচিত। তার ছেলে মাদকসেবী মিহির সাহা এজন চিহিৃত মাদক ব্যবসায়ী। তাদের কারণে এলাকার যুবসমাজ দিন দিন মাদকের প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ছে। শিক্ষক ফারুক হোসেন এলাকার যুবসমাজকে রক্ষা করতে মিহিরকে মাদকের ব্যবসা ছেড়ে দেয়ার অনুরোধ জানান। কিন্তু তার কথা না শুনে এক পর্যায় পিতা কাশিনাথ ও ছেলে মিহির দু’জনেই মাদক ব্যবসার সাথে জড়িয়ে পড়ে। যুবসমাজকে রক্ষা করতে মাদকের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়ে প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টা করায় এলাকার চিহিৃত মাদক ব্যবসায়ী সুদখোর কাশিনাথ সাহা ও তার ছেলে মিহির সাহা শিক্ষক ফারুক হোসেনের বিরুদ্ধে নানা ষড়যন্ত্র শুরু করে। তিনি আরো বলেন, সম্প্রতি এক মাদক বিরোধী অভিযানে মিহির সাহা গ্রেফতার হয় এবং ভ্রাম্যমান আদালত তাকে দুই দিনের সাজা প্রদান করে। সাজা খেটে বাড়ি ফিরে স্থানীয় কয়েকজন দুর্নীতিবাজদের মদদে মিহির সাহা তার পিতা কাশিনাথ সাহাকে দিয়ে গত ৫ মে সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবে শিক্ষক ফারুক হোসেনের বিরুদ্ধ একটি মিথ্যে সংবাদ সম্মেলন করায়। সংবাদ সম্মেলনে তার দেয়া বক্তব্য সম্পূর্ণ মিথ্যে, বানোয়াট, উদ্দেশ্য প্রণোদিত ও ভিত্তিহীন। পিতা ও ছেলের মাদক ব্যবসার প্রতিবাদ করায় একজন আদর্শবান শিক্ষককে সমাজে হেয়প্রতিপন্ন করার জন্য সম্পূর্ণ পরিকল্পিতভাবে কাশিনাথ সাহা ওই সংবাদ সম্মেলন করে সাংবাদিকদের সামনে মিথ্যে তথ্য উপস্থাপন করে। বর্তমানে তারা আমাকেসহ আমার ভাগ্নে ফারুক হোসেনকে বিভিন্ন ফাঁদে ফেলে মিথ্যে মামলা দিবে বলে হুমকি দিচ্ছে। এঘটনায় আমরা শঙ্কিত হয়ে পড়েছি। তিনি দুর্নীতিবাজ ও মাদক ব্যবসায়ীদের হাত থেকে এলাকার যুবসমাজকে রক্ষার পাশাপাশি ভাগ্নে শিক্ষক ফারুক হোসেনের বিরুদ্ধে মিথ্যে অপপ্রচারের সাথে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের জরুরী হস্তক্ষেপ কামনা করেন। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, ধানদিয়া পুলিশিং কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা: তবিবুর রহমান, যুবলীগ নেতা প্রকাশ কুমার সাহা, পার্থ চক্রবর্ত্রী, প্রভাষক মো: আহাঙ্গির আলম ও উত্তর সারসা সর:প্রা: বিদ্যা: ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক মো: ফারুক হোসেন।

শ্যামনগর

যশোর

আশাশুনি


জলবায়ু পরিবর্তন